Corruption: জয়েন্ট সেক্রেটারির ঘরে কালো টাকার পাহাড়

84

ঘরে ঢুকে একটু খোঁজাখুঁজি করতেই চমকে গেলেন দুর্নীতি দমন শাখার অফিসাররা। ঘরে লুকোনো আছে লাখ লাখ টাকা। কালো টাকার পাহাড় জমিয়েছিলেন (Black money) খোদ সরকারি আমলা। সেই টাকার হদিস (Corruption) পাওয়ার পর হই হই কান্ড।

পশ্চিমবঙ্গে বিপুল কালো টাকা উদ্ধার হচ্ছে। প্রাক্তন মন্ত্রী ও বিধায়ক সহ রাজ্য সরকারের শিক্ষা দফতরের শীর্ষ কর্তারা জেলে আছেন। এ ঘটনায় তৃ়ণমূল কংগ্রেস সরকার প্রবল বিব্রত। এবার বাংলার প্রতিবেশি অসমে মিলল কালো টাকার পাহাড়। এর জেরে বিব্রত এ রাজ্যে সরকারে থাকা বিজেপি।

ঘুষ নেওয়ার অভিযোগের ভিত্তিতে অসম পুলিশ ও দুর্নীতি দমন শাখার অভিযান চলে অসমের শীর্ষ আমলা জয়েন্ট সেক্রেটারি কে কে শর্মার বাডিতে। অভিযানে নেমে চমকে গেছেন দুর্নীতি দমন শাখার কর্মীরা। থরে থরে সাজানো নোট। গোনাগুনতি শেষে মিলেছে ৪৯ লক্ষ ২৪ হাজার ৭০০ টাকা।

জানা গিয়েছে, একটি সংস্থার লাইসেন্স রিনিউ করার জন্য অসমের এই শীর্ষ আমলা ৯০ হাজার টাকা ঘুষ নিয়েছিলেন। এই অভিযোগের ভিত্তিতে জয়েন্ট সেক্রেটারি কে কে শর্মার গতিবিধি লক্ষ্য রাখা হচ্ছিল। সূত্র মিলতেই হয় অভিযান।

এই ঘটনার পরেই অসম জুড়ে শোরগোল। সম্প্রতি এ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মার বিরুদ্ধে ঝাড়খণ্ডের কংগ্রেস বিধায়কদের কেনাবেচা করার জন্য বিপুল অর্থ ছড়ানোর অভিযোগ উঠেছিল। ঝাড়খণ্ডে সরকার ফেলার জন্য অসম থেকে বিজেপি টাকা ছড়ানোর অভিযোগ উঠেছিল পশ্চিমবঙ্গের তিন ঝাড়খন্ডী কংগ্রেস বিধায়ক টাকা সহ ধরা পড়ার পর।

(সব খবর, সঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে পান। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram এবং Facebook পেজ)