বাংলাদেশ সীমান্তে গুলিবিদ্ধ রক্ষীর মৃতদেহ উদ্ধার

14

রক্তাক্ত দেহ পড়েছিল ভারত সীমান্তের একটু দূরে। নিহত নেপাল দাস বাংলাদেশ বর্ডার গার্ড (BGB) সৈনিক। কে গুলি করল বাংলাদেশের (Bangladesh) এই সীমান্তরক্ষীকে? 

রক্তাক্ত দেহ দেখলেই বোঝা যায় সরাসরি বুকে গুলি করা হয়েছে। তাতেই মারা গেছেন বাংলাদেশের সীমান্তরক্ষী নেপাল দাস। বছর ৩৫ এর এই বিজিবি রক্ষীর দেহ উদ্ধারের পর প্রশ্ন গুলি কে করেছিল?

বাংলাদেশ বর্ডার গার্ড (BGB) জানাচ্ছে, ভারত সীমান্তের রাজশাহীর জয়পুরহাটে মিলেছে সীমান্তরক্ষী নেপাল দাসের দেহ। নিহত নেপাল দাস জয়পুরহাট ২০ বিজিবি ক্যাম্পের সদস্য। তিনি পাঁচবিবি সীমান্ত চেকপোস্টে কর্মরত ছিলেন। পা়ঁচবিবি বিজিবি বিশেষ ক্যাম্পের কমান্ডার নায়েক সুবেদার তোফাজ্জল জানান, গুলিবিদ্ধ অবস্থায় ওই রক্ষীকে জেলা আধুনিক হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানেই চিকিৎসকেরা তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

বিজিবি জানাচ্ছে, সীমান্ত রক্ষী নিহত নেপাল দাস ফরিদপুরের মধুখালী মেঘচামী গ্রামের বাসিন্দা। তার পিতার নাম নারায়ণ দাস।

জয়পুরহাট সদর থানার ওসি সিরাজুল ইসলাম বলেন, বিজিবি রক্ষীরা গুলিবিদ্ধ দেহ আনার খবর পেয়ে হাসপাতালে গিয়েছিলাম। তার পোশাক রক্তাক্ত ছিল। তিনি গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা গেছেন। তাঁর বুকে গুলির দাগ রয়েছে। শুক্রবার সকালে ময়নাতদন্ত শেষে বিজিবি সদস্যরা অ্যাম্বুলেন্সে করে নেপাল দাশের মরদেহ বিজিবি ক্যাম্পে নিয়ে যান।

(সব খবর, সঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে পান। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram এবং Facebook পেজ)