DA দিতে গেলে বন্ধ হয়ে যাবে লক্ষ্মীর ভাণ্ডার, কন্যাশ্রী, স্বাস্থ্যসাথী- মন্ত্রীর মন্তব্যে শোরগোল রাজ্যে

রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের DA দিতে গেলে বন্ধ হয়ে যাবে লক্ষ্মীর ভাণ্ডার কন্যাশ্রী, স্বাস্থ্যসাথীর মতো প্রকল্প। রাজ্যের কৃষিমন্ত্রী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়ের মন্তব্য ঘিরে শুরু হয়েছে বিতর্ক।

State Agriculture Minister Sovandeb Chattopadhyay addressing the media

রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের DA দিতে গেলে বন্ধ হয়ে যাবে লক্ষ্মীর ভাণ্ডার কন্যাশ্রী, স্বাস্থ্যসাথীর মতো প্রকল্প। রাজ্যের কৃষিমন্ত্রী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়ের মন্তব্য ঘিরে শুরু হয়েছে বিতর্ক।

খড়দার পাতুরিয়ায় দিদির সুরক্ষা কবচ কর্মসূচিতে যোগদান করতে গিয়ে একথা বলেন তিনি। এই মন্তব্যে বিরোধীরা বলেন, সরকার দেউলিয়া হয়ে গেছে, সেকথাই বলছেন মন্ত্রী।

   

এদিন শোভনদেব বাবু বলেন, “ডিএ দিতে গেলে লক্ষ্মীর ভাণ্ডারের টাকাটা বন্ধ হয়ে যেতে পারে। স্বাস্থ্যসাথীর কার্ডটা বন্ধ হয়ে যেতে পারে। কন্যাশ্রীর টাকাটা বন্ধ হয়ে যেতে পারে। বুকে হাত রেখে বাড়ি গিয়ে

ভাববেন, শোভনদেববাবু যে কথাটা বললেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কার কথা ভাববেন? গরিবের কথাটা ভাববেন, না কি যে লোকটা ইতিমধ্যে পাচ্ছেন, তাঁকে একটু বেশি পয়সা দেবেন। কোনটা ঠিক বিচার”।

শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়ের এই মন্তব্যে বিজেপির তরফে বলা হয়েছে, রাজ্য সরকার দেউলিয়া হয়ে গেছে। যে সরকার তার কর্মীদের ন্যায্য পাওনা দিতে পারে না তাদের ক্ষমতায় থাকার অধিকার নেই।

ভোট কিনতে রাজ্য সরকারি কর্মীদের হকের টাকা ব্যবহার করছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বিজেপি কল্যাণমূলক প্রকল্পের বরাদ্দ অন্যের পকেট থেকে নেয় না। বিজেপি ক্ষমতায় এলে রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের বকেয়া DA কড়ায় গন্ডায় মিটিয়ে দেওয়া হবে।