ইস্টবেঙ্গল এফসি দলবদল নিয়ে বড়সড় আপডেট

436
East Bengal

ইন্ডিয়ান সুপার লিগে (ISL)ওড়িশা এফসির বিরুদ্ধে প্রথমার্ধে ২-০ গোলে এগিয়ে থাকার পর, খেলার দ্বিতীয়ার্ধের তিন মিনিটের মধ্যে জড়া গোল হজম এবং শেষে ২-৪ গোলে পরাজয় ইস্টবেঙ্গল এফসির (East Bengal FC)। ঘরের মাঠ যুবভারতী ক্রীড়াঙ্গনে বিরাট হারের এই ধাক্কা এখনও সামলে উঠতে পারে নি লাল হলুদ শিবির।

এই বিরাট পরাজয়ের আবহে মধ্যে টিম ইস্টবেঙ্গলে বেশ কিছু পজিশনে নতুন রিক্রুটমেন্টের জল্পনা ঘিরে শুরু হয়েছে জোর চর্চ্চা। গত শুক্রবার খেলা শেষে ইস্টবেঙ্গল কর্তা দেবব্রত সরকার সাংবাদিকদের জানিয়ে দিয়েছেন, জানুয়ারি মাসে টিম চেঞ্জের জন্য প্ল্যানিং চলছে। ফলে শীতকালীন ফিফা উইন্ডো কাজে লাগিয়ে ইস্টবেঙ্গল কর্তারা ক্ষতে প্রলেপের চেষ্টা চালাবেন তা পরিষ্কার। ক্ষতে এই কারণে প্রলেপ দিতে হবে যে ইস্টবেঙ্গল এফসি ISL টুর্নামেন্টে ৭ ম্যাচ খেলে জয় পেয়েছে মাত্র ২ ম্যাচে এবং হেরেছে ৫ ম্যাচ।

এখন লাল হলুদ ভক্তদের কাছে প্রশ্ন একটাই জানুয়ারির ফিফা উইন্ডোতে প্রিয় দলে করা যোগ দিতে চলেছে কোন ফুটবলারের বদলে।সূত্র মারফৎ খবর পাওয়া গিয়েছে, ইভান গঞ্জালেস ইস্টবেঙ্গল কোচ স্টিফেন কনস্টাটাইনের ‘গুড বুকে’ থাকায় ইভান স্কোয়াডে থাকছে।ব্রাজিলিয়ান স্ট্রাইকার এলিয়ান্দ্রোর পারফরম্যান্স এবং তার স্কোরিং পয়েন্ট হতাশাজনক টিম ম্যানেজমেন্টের কাছে।ফলে লাল হলুদ বিগ্রেড থেকে এলিয়ান্দ্রোর বিদায় নিশ্চিত। ফিটনেস ইস্যুতে লিমাকে নিয়ে সিদ্ধান্ত পাকা করে ফেলা হয়েছে।ব্রাজিলিয়ান এই ফুটবলারের পরিবর্তে ISL খেলা এক মিডফিল্ডারের সাথে যোগাযোগ করা হয়েছে।

এর পাশাপাশি সূত্রে খবর,দুই থেকে তিনজন ভারতীয় মিডিও’কে লোনে ইস্টবেঙ্গল এফসিতে নিয়ে আসার বিষয়ে কথাবার্তা শুরু হয়েছে। প্রসঙ্গত, ওড়িশা এফসির কাছে হারের পর সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে লাল হলুদ শিবিরের হেডকোচ স্টিফেন কনস্টাটাইন টিমের খেলোয়াড়দের ওপরে হারের দায় চাপিয়ে বলেছিলেন, “হঠাৎ করে ছেলেরা যেন সুইচ অফ করে বসে রইল এবং তারই শাস্তি পেতে হল আমাদের।”এরই সঙ্গে ছেলেরা যে ভুল করেছে তা ” স্কুলের ছেলেরাও করে না” এমন দাবিও করেন ইস্টবেঙ্গল এফসির কোচ কনস্টাটাইন। সব মিলিয়ে ভুলের থেকে শিক্ষা পেয়ে এবার ইস্টবেঙ্গল কর্মাকর্তারা আসন্ন ফিফা উইন্ডোকে কাজে লাগিয়ে ‘ড্যামেজ কন্ট্রোলে’র জন্য আসরে নেমেছেন।

(সব খবর, সঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে পান। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram এবং Facebook পেজ)