Upper Primary: ‘চাকরির বদলে বুলেট দিন’, মমতা সরকারকে কটাক্ষ আন্দোলনকারীদের

35

সরকার হয় চাকরি দিক না হয় বুলেট দিক। গুলি করার দাবি করেছেন তাঁরা। সেই সঙ্গে মমতা সরকারের প্রতি চলে তীব্র কটাক্ষ। আপার প্রাইমারি (Upper Primary) চাকরিপ্রার্থীদের আন্দোলনের জেরে কলকাতার (Kolkata) রাজপথ উত্তাল। তাদের সরাতে গিয়ে ফের বিতর্কে জড়াল কলকাতা পুলিশ (Kolkata Police)।

কামড় নয় এবার কালীঘাটে পুলিশের বিরুদ্ধে আঁচড়ে দেওয়ার অভিযোগ তুলেছেন আপার প্রাইমারি চাকরিপ্রার্থীরা। এবার চাকরিপ্রার্থী এক মহিলার অভিযোগ, পুলিশ আঁচড় ও চিমটি কাটার অভিযোগ উঠেছে। এই অভিযোগের পর বিতর্ক জমাট।

আন্দোলনরত চাকরি প্রার্থীদের মধ্যে এক মহিলাকে টেনে নিয়ে যাওয়ার সময় তিনি অভিযোগ করেন, আমার জামা ছিঁড়ে দিয়েছে। চিমটি কেটে আঁচড়ে দিয়েছে।

মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ির কাছে আপার প্রাইমারি চাকরিপ্রার্থীদের বিক্ষোভে ধুন্ধুমার। বুধবার আচমকা কালীঘাট ও যতীন দাস মেট্রো স্টেশন থেকে বেরিয়ে বিক্ষোভ মিছিল শুরু করেন চাকরিপ্রার্থীরা। পরিস্থিতি মুহূর্তে গরম হয়ে যায়।

কলকাতা পুলিশের দাবি এই বিক্ষোভের খবর তাদের কাছে ছিল না। তবে চাকরিপ্রার্থীদে সরাতে গেলে পরিস্থিতি গরম হয়। বাধা দেয় পুলিশ। রাস্তায় বসে পড়ে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন চাকরিপ্রার্থীরা। তাদের টেনে হিঁচড়ে বাসে, প্রিজন ভ্যান এমনকি ট্যাক্সিতে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়।

চাকরিপ্রার্থীদের অভিযোগ ২০১৪ থেকে চাকরির দাবিতে আন্দোলন করে যাচ্ছেন। আট বছর হয়ে গেলেও এখনও রাস্তাতেই রয়েছেন তারা। এই আট বছরের ক্ষতিপূরণ কে দেবে। চাকরির দাবি করলে পুলিশ দিয়ে মারা হচ্ছে। হয় চাকরি, নয় বুলেট স্লোগান দিতে থাকেন তাঁরা।

সম্প্রতি কলকাতা পুলিশের কর্মী ইভা থাপা এক আন্দোলনকারী চাকরিপ্রার্থী অরুণিমা পালকে কামড়ে দেন। এ নিয়ে বিতর্ক প্রবল হয়। পরে ওই অভিযোগের ভিত্তিতে জিজ্ঞাসাবাদের মুখে পড়েন ইভা থাপা।

(সব খবর, সঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে পান। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram এবং Facebook পেজ)