SSC Scam: ভোটে ‘খেলা হবে’, বান্ধবী অর্পিতাকে তৃণমূলের প্রার্থী করতে চেয়েছিল পার্থ

তৃণমূলে আলোচনা মদন মিত্রের খাস এলাকায় পার্থর রাজনৈতিক বোড়ে ছিল অর্পিতা।

96

শিক্ষাক্ষেত্রে নিয়োগ দুর্নীতি (SSC Scam) মামলায় জেল হেফাজতে প্রাক্তন মন্ত্রী (Partha Chatterjee) পার্থ চট্টোপাধ্যায় এবং তার ঘনিষ্ঠ (Arpita Mukherjee) অর্পিতা মুখ্যোপাধ্যায়। নিয়োগ দুর্নীতি নিয়ে ইডির তরফে যে চার্জশিট (ED Chargesheet)  জমা করা হয়েছে, তাতে একের পর এক বিস্ফোরক তথ্য উঠে আসছে। এবার আরও চাঞ্চল্যকর তথ্য উঠে এসেছে। অর্পিতাকে তৃণমূল কংগ্রেস (TMC) প্রার্থী করার জন্য আদা জল খেয়ে খেলতে নেমেছিলেন পার্থ।

ইডি চার্জশিটে বলা হয়েছে, মদন মিত্রের খাস এলাকা কামারহাটি পুরসভার ২২ নম্বর ওয়ার্ডে অর্পিতাকে প্রার্থী করতে চেয়েছিলেন পার্থ। কিন্তু তাকে সমর্থন ছিল না স্থানীয় তৃণমূল নেতাদের। পুরভোটের আগে বিধানসভা নির্বাচনে সিপিআইএমের মানস মুখার্জিকে হারিয়ে কামারহাটির পুনর্দখল নেন মদন মিত্র। তিনি কি অর্পিতাকে পার্থী হওয়ার ইচ্ছার বিষয়ে বিষয়ে কিছু জানতেন, এটিও খতিয়ে দেখছে ইডি।

উল্লেখ্য, নিয়োগ দুর্নীতি নিয়ে ইডির দায়ের করা চার্জশিটে ছত্রে ছত্রে উল্লেখ রয়েছে অর্পিতা ও পার্থের সম্পর্কের কথা। ইডির তরফে জানানো হয়েছে, কোথাও অর্পিতার নামে একাধিক জীবনবীমা জমা করতেন পার্থ৷ আবার কোথাও উল্লেখ রয়েছে অর্পিতার মা হওয়াতে সম্মতি দিয়েছিলেন পার্থই৷ এমনকি তাদের বিদেশী সম্পত্তির হদিশ মিলেছে বলেও জানিয়েছে ইডি৷

এমনকি একাধিক ভুয়ো কোম্পানি খুলে কালো টাকা সাদা করার কাজ চলত বলেও জানিয়েছে ইডি৷ এমনকি বেশ কিছু কোম্পানির ডিরেক্টররা জানতেনই না তাদের কী ভূমিকা ছিল৷ তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ করে তথ্য হাতে পেয়েছে তদন্তকারী সংস্থা। একইসঙ্গে পিংলায় বিসিএম ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের মাধ্যমেও টাকা সাদা করা হত। এমনটাই অনুমান ইডির৷

গত ২২ জুলাই অর্পিতা মুখ্যোপাধ্যায়ের ফ্ল্যাট থেকে বিপুল অঙ্কের টাকা উদ্ধারের পরেই অর্পিতার সঙ্গে দলের যোগ অস্বীকার করেছিল তৃণমূল। এমনকি পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের সমস্ত পদ কেড়ে নেওয়া হয়৷ এখন অর্পিতাকে নিয়ে ইডি চার্জশিটে একের পর এক যে তথ্য উঠে আসছে তাতে আলোড়ন ফেলে দিয়েছে।