প্রতিশ্রুতিই সার! শিয়ালদহ ডিভিশনে ১২ বগির জায়গায় চলছে ৯ বগির ট্রেন

রেলের প্রতিশ্রুতিই সার! ১ জুলাইয়ের পর এক সপ্তাহ পেরিয়ে গেলেও এখনও শিয়ালদহ (Sealdah) থেকে ৯ বগির আপ ট্রেন দেওয়া হচ্ছে। অফিস টাইমে শিয়ালদহ (Sealdah) উত্তর…

রেলের প্রতিশ্রুতিই সার! ১ জুলাইয়ের পর এক সপ্তাহ পেরিয়ে গেলেও এখনও শিয়ালদহ (Sealdah) থেকে ৯ বগির আপ ট্রেন দেওয়া হচ্ছে। অফিস টাইমে শিয়ালদহ (Sealdah) উত্তর শাখার বেশ কয়েকটি লাইনে ৯ বগির ট্রেন দেওয়া হচ্ছে। আজ, সোমবার সপ্তাহের প্রথম কাজের দিনও সন্ধ্যা ৬টা ৫ মিনিটের আপ নৈহাটি লোকাল (৩১৪৩৫) ৯ কোচের দেওয়া হয়েছে।

রেলের এহেন আচরণে চরম ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন নিত্যযাত্রীরা। রমেন বিশ্বাস নামে এক নিত্যযাত্রীর কথায়, পূর্ব রেলের তরফে ঢাকঢোল পিটিয়ে ঘোষণা করা হয়েছিল ১ জুলাই থেকে সমস্ত ট্রেন ১২ বগির করা হবে। কিন্তু তারপর বেশ কয়েকদিন পেরিয়ে গেলেও এখনও দিনের বেশ কয়েকট ট্রেন ৯ বগির দেওয়া হচ্ছে। এর ফলে প্রচণ্ড ভিড় হচ্ছে।

   

৯ বগির ট্রেন দেওয়ার ফলে একদিকে যেমন ভিড় বেশি হচ্ছে, তেমনই বিধাননগর-দমদমের মতো স্টেশন থেকে ট্রেনে চড়তে গিয়ে সমস্যার মুখে পড়ছেন যাত্রীরা। কলেজপড়ুয়া আবীর দত্তের কথায়, বিধাননগর থেকে বেশিরভাগ দিনই ট্রেনে উঠতে সমস্যা হয়। ৯ বগির ট্রেন দেওয়ায় সেই সমস্যা আরও বৃদ্ধি পাচ্ছে। বহু মানুষ ট্রেনে উঠতে পারছেন না।

সন্দেশখালি মামলা: ফের মুখ পুড়ল মমতা সরকারের! সুপ্রিম কোর্টে খারিজ সিবিআই তদন্তের চ্যালেঞ্জ

এর আগে গত শুক্রবার বিকেল ৪টে ৫৭ মিনিটের আপ শিয়ালদহ-শান্তিপুর (৩১৫২৯) লোকাল ৯ কোচের দেওয়া হয়েছে। অন্যদিকে পাশের প্লাটফর্মে দাঁড়িয়ে থাকা ৫টা ৫ মিনিটের আপ শিয়ালদহ-কৃষ্ণনগর মাতৃভূমি লোকাল (৩১৮০১) ১২ বগির দেওয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকেলের একটি ডানকুনি লোকালও ৯ কোচের দেওয়া হয়েছিল।

এদিকে আর কয়েকদিনের মধ্যেই বিরাট উপহার পেতে চলেছেন শিয়ালদহের নিত্যযাত্রীরা। রেলের তরফে যাত্রীদের প্রবেশ-প্রস্থানের জন্য নতুন গেট বানানো হচ্ছে। দিন কয়েক আগে গেটের কাজ শুরু হয়েছে। আপাতত জোরকদমে সেই কাজ চলছে। এজন্য রেলের তরফে ব্যারিকেডও করে দেওয়া হয়েছে।

‘ব্যবস্থা করতে হবে…’, মোদীর মন্ত্রীকে কড়া ‘ধমক’ মমতার

যাত্রীদের সুবিধার্থে ১ ও ২ নম্বর স্টেশনে সামনের অংশে নতুন গেট বানাতে চলেছে রেল। জুলাইয়ের মাঝামাঝি এই গেট চালু হতে পারে বলে খবর। প্রসঙ্গত, দীর্ঘ কয়েক বছর ধরে বন্ধ রয়েছে শিয়ালদহ স্টেশনের প্রফুল্ল দ্বার (১ নম্বর স্টেশনের পাশের গেট)। টিন দিয়ে সিল করে দেওয়া হয় ওই গেট। এর ফলে ব্যাপক সমস্যায় পড়ছেন যাত্রীরা।