ভারতীয় নৌসেনার শক্তি বাড়াতে মহাসাগরে ভাসছে INS Dhruv

312
INS Dhruv

নিউজ ডেস্ক: সমুদ্রে শক্তি বাড়তে চলেছে ভারতীয় নৌসেনার৷ ভারতের প্রথম পারমাণবিক ক্ষেপণাস্ত্র ট্র্যাকিং জাহাজ INS Dhruv আজ উৎক্ষেপণ করা হবে। ১০,০০০ টনের এই বিশেষ জাহাজটি আজ অন্ধ্রপ্রদেশের বিশাখাপত্তনমে অন্তর্ভুক্ত করা হবে।

ভারতীয় নৌবাহিনী, প্রতিরক্ষা গবেষণা ও উন্নয়ন সংস্থা (DRDO) এবং ন্যাশনাল টেকনিক্যাল রিসার্চ অর্গানাইজেশনের (NTRO) পদস্থ কর্মকর্তারা এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন। এটি প্রথম ভারতীয় জাহাজ, যা পারমাণবিক এবং ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ট্র্যাক করতে পারে। জানা গিয়েছে, এই জাহাজটি ইন্দো-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে দেশের উপস্থিতিকে আরও এগিয়ে নিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।

এখন পর্যন্ত এই ধরনের জাহাজ শুধুমাত্র ফ্রান্স, আমেরিকা, ব্রিটেন, রাশিয়া এবং চিনে রয়েছে। এবার এই ধরনের জাহাজ চালানোর জন্য ভারত হবে বিশ্বের ষষ্ঠ দেশ। এই জাহাজের নজরদারি ব্যবস্থা চালানোর জন্য ১৪ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ প্রয়োজন৷ যা আইএনএস ধ্রুব নিজেই তৈরি করবে।

INS Dhruv

INS Dhruv এর বিশেষত্ব কী?
১. আইএনএস ধ্রুব তার ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ক্ষমতায় ভারতীয় শহর এবং সামরিক স্থাপনার দিকে শত্রু ক্ষেপণাস্ত্রগুলির জন্য একটি প্রাথমিক সতর্কতা ব্যবস্থা হিসাবে কাজ করবে।

২. DRDO এর তৈরি ধ্রুবের উন্নত একটি অত্যাধুনিক অ্যাক্টিভ স্ক্যানারে রাডার (AESA) রয়েছে। এর মাধ্যমে ভারতের ওপর নজর রাখা গুপ্তচর উপগ্রহগুলো পর্যবেক্ষণ করা যাবে। পাশাপাশি এটি পুরো অঞ্চল জুড়ে ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা পর্যবেক্ষণ করতে সক্ষম হবে।

৩. ধ্রুব হল ভারতের প্রথম নৌ জাহাজ, যা দূরপাল্লার পারমাণবিক ক্ষেপণাস্ত্র ট্র্যাক করতে সক্ষম। ফলে ইন্দো-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে পারমাণবিক ব্যালিস্টিক যুদ্ধের ক্রমবর্ধমান হুমকির সঙ্গে এটি একটি বিশেষ গুরুত্ব বহন করে।

৪. এগুলি ছাড়াও আইএনএস ধ্রুব শত্রু সাবমেরিনগুলিতে নজর রাখবে। গবেষণাতেও এর সাহায্য নেওয়া যেতে পারে। এটি সমুদ্রতল ম্যাপ করার ক্ষমতা দিয়েও সজ্জিত।