বেরোচ্ছে পচা গন্ধ! গড়িয়ার ফ্ল্যাটে উদ্ধার বাবা-মা-ছেলের ঝুলন্ত দেহ

গড়িয়া স্টেশন(Garia Station) এলাকার একটি আবাসনের ঘর ৩ দিন বন্ধ রয়েছে। ওই বাড়িতে স্বামী স্ত্রী এবং ছেলে থাকে। স্বপন মৈত্র ৭৫, অপর্ণা মৈত্র ৬৯ ও…

গড়িয়া স্টেশন(Garia Station) এলাকার একটি আবাসনের ঘর ৩ দিন বন্ধ রয়েছে। ওই বাড়িতে স্বামী স্ত্রী এবং ছেলে থাকে। স্বপন মৈত্র ৭৫, অপর্ণা মৈত্র ৬৯ ও ৩৯ বছরের ছেলে। তাদের আত্মীয়রা ফোন করে তাদের কোনও খবর পাচ্ছিলেন না। ইতিমধ্যে ঘর থেকে পচা গন্ধ বেরোচ্ছে। জানালার নেটে মাছি লেগে গেছে। ঘরের দরজা ভেতর থেকে বন্ধ ছিল। বেল দিয়েও কোনও সাড়া পাওয়া যাচ্ছিল না। খবর পেয়ে নরেন্দ্রপুর থানার পুলিশ(Narendrapur Police Station) ঘটনাস্থলে এসে ওই ফ্ল্যাটের দরজা ভেঙে তিনজনের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার করে। বাড়ির কর্তা স্বপনবাবু আগে একটি বেসরকারি সংস্থায় ইঞ্জিনিয়র ছিলেন।

কিছুদিন আগে থেকে তিনি শারীরিকভাবে অসুস্থ হয়ে যান। বছর দেড়েক আগে তার হার্টের বাইপাস সার্জারি হয়। তার স্ত্রী অপর্না দেবীও অসুস্থ ছিলেন। বেশ কিছুদিন ধরে পরিবারটি আর্থিক অনটনে ভুগছিল বলে জানা যাচ্ছে। ছেলে সেরকম ভাবে কিছু কাজকর্ম করত না। যার ফলে সংসারে আর্থিক অভাব ছিল। সংসারের পেছনে বেশ খানিকটা সাহায্য করতেন অপর্না দেবীর ভাই দেবাশীষ ঘোষ। দেবাশীষ বাবু তিন দিন আগে বেড়াতে গিয়েছিলেন। দু-থেকে তিন দিন দেবাশীষ বাবু কোনও ভাবে ফোনে যোগাযোগ করতে পারছিলেন না ওদের সঙ্গে।

   

আজ সকালে দেবাশীষ বাবু ঘটনাস্থলে আসেন। এসে দেখেন ফ্ল্যাটের ভেতর থেকে প্রচন্ড গন্ধ বেরোচ্ছে। তারপর পুলিশে খবর দিলে নরেন্দ্রপুর থানার পুলিশ ফ্ল্যাটের দরজা ভেঙে তিনজনের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার করে। আর্থিক অনটনে আত্মহত্যা বলে অনুমান করছেন প্রতিবেশীরা। ঘটনাটি ঘটেছে গড়িয়া স্টেশন এলাকার উত্তর বালিয়ার একটি আবাসনে।