TMC : অভিষেকের শ্বেতপত্র প্রকাশের হুঁশিয়ারি, এলেন না কোন গেরুয়া নেতা

  তৃণমূল সভাপতির হুঁশিয়ারি সত্ত্বেও পোডিয়ামে এলেন না কোনও গেরুয়া নেতা। বৃহস্পতিবার ময়নাগুড়ির টাউন ক্লাবে জনসভা করেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। গত রবিবার…

ABHISHEK BANERJEE

 

তৃণমূল সভাপতির হুঁশিয়ারি সত্ত্বেও পোডিয়ামে এলেন না কোনও গেরুয়া নেতা। বৃহস্পতিবার ময়নাগুড়ির টাউন ক্লাবে জনসভা করেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

গত রবিবার ব্রিগেড থেকে প্রধানমন্ত্রীকে হুঁশিয়ারি দেন তিনি। রাজ্যকে কত টাকা দিয়েছে কেন্দ্র তার শ্বেতপত্র প্রকাশের চ্যালেঞ্জ জানিয়েছিলেন তিনি। বৃহস্পতিবার এক্স হ্যান্ডেলে তিনি মুখোমুখি হওয়ার আহ্বান জানান বিজেপিকে কিন্তু অবশেষে সেখানে কেউ না আসায় সুর চড়িয়েছেন অভিষেক।

এক্স হ্যান্ডেল তিনি লেখেন মিথ্যাচার করছে বিজেপি। পাবলিকের টাকা নষ্ট করেছে। আমি বিজেপি নেতৃত্বকে আমার সঙ্গে মুখোমুখি বিতর্কে বসতে বলছি।

তিনি ময়নাগুড়ি থেকে বলেছেন, ” দুটো পোডিয়ামে রেখেছিলাম কেউ আসেনি। সবাই লেজ গুটিয়ে পালিয়েছে।” তিনি আরও যুক্ত করেন যে, ” যত চোর চিটিংবাজ দুর্নীতিগ্রস্ত বিজেপিতে। আগেকার দিনে দেখতাম চোর চুরি করে, খুনি খুন করে বিচারব্যবস্থার নির্দেশে জেলে যাচ্ছে। এখন দেখছি যারা টিভির পর্দায় নির্লজ্জের মতো হাত বাড়িয়ে কাগজে মুড়ে টাকা নিয়েছে।”

তিনি জানান ধূপগুড়ি মহুকুমা হয়েছে। ধূপগুড়ি ব্লকে ৬০ বেডের গ্রামীণ হাসপাতাল ১০০ বেডের মহকুমা হাসপাতাল হবে। সিএএ প্রসঙ্গে বলেন ভারতবর্ষের মানুষের কাছে কাগজ চাইছেন, নাগরিকত্ব দেবেন বলে। নিজের কাছে কাগজ আছে তো?

মঞ্চে ওঠার আগে ভিডিয়ো দেখিয়েছেন অভিষেক। সেই প্রসঙ্গই তুললেন তিনি। বলেন, ”আপনাদের সমর্থন নিয়ে ভাতে মারার চেষ্টা করেছে। আগামী দিন অধিকার সামনে রেখে ভোট দেবেন!”

তিনি আরও বলেন, “অভিষেক বলেন, ” বিজেপিকে ভোট দিয়ে তৃণমূলকে বলতে পারেন না। তৃণমূলকে ভোট দিন, কথা পূরণ না হলে রাজনীতি ছেড়ে দেব।”‘

যদিও অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের টুইটের প্লাটা টুইট করেছে বিজেপি। তাঁকেও প্লাটা মুখোমুখি হওয়ার আহবান জানিয়েছে বিজেপি।