শক্তি থাকলেই সকলে সম্মান করবে, রাশিয়া-ইউক্রেনের যুদ্ধ থেকে শিক্ষা পেল ভারত

109

লাগাতার তিন মাস ধরে রাশিয়া-ইউক্রেনের মধ্যে যুদ্ধ চলছে। রাশিয়ার লাগাতার আগ্রাসনের পরেও হার নতিস্বীকার করতে নারাজ ইউক্রেন। ইউক্রেনের দীর্ঘ প্রতিরোধ কেবল রাশিয়ার কাছেই বিস্ময়কর নয়, এটি প্রতিরক্ষা বিশেষজ্ঞদের সম্ভাবনাকেও খারিজ করে দিয়েছে যারা বলে আসছে যে ঐতিহ্যগত যুদ্ধের সময় শেষ হয়ে গেছে।

এদিকে এই নিয়ে এবার মুখ খুললেন ভারতীয় সেনার লেফটেন্যান্ট জেনারেল তথা ইস্টার্ন কম্যান্ডের জেনারেল অফিসার কম্যান্ডিং-ইন-চিফ রানা প্রতাপ কলিতা। তিনি বলেন, এই যুদ্ধ একটি শিক্ষা দিয়েছে যে আপনি যদি নিরাপদ হতে চান তবে আপনাকে শক্তিশালী হতে হবে এবং শক্তি থাকতে হবে। এমনটাই মত ভারতীয় সেনার লেফটেন্যান্ট জেনারেল তথা ইস্টার্ন কম্যান্ডের জেনারেল অফিসার কম্যান্ডিং-ইন-চিফ রানা প্রতাপ কলিতা-র।

জেনারেল কালিতা বলেন, ‘রুশ-ইউক্রেন যুদ্ধ থেকে কিছু বিষয় স্পষ্ট ভাবে বেরিয়ে আসে। তাদের মধ্যে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হল কঠোর ক্ষমতা থাকা। সর্বোপরি, একটি দেশ কেবল তখনই আপনাকে সম্মান করবে যখন আপনার কঠোর ক্ষমতা থাকবে।”

তিনি আরও বলেন, দীর্ঘদিন ধরে একটা মিথ ছড়ানো হচ্ছিল যে, এখন সংগ্রামের সময় শেষ হতে চলেছে। কিন্তু রুশ-ইউক্রেন যুদ্ধ আমাদের দেখিয়েছে যে, তারা উন্মুক্ত সংঘাতের মাধ্যমে তাদের জাতীয় স্বার্থ অর্জনের চেষ্টা করছে।

তিনি আরও বলেন যে, “আত্মনির্ভরশীলতা, তা সে সামরিক বা অন্য কেউ ই হোক না কেন, সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন। একটি পৌরাণিক কাহিনীও ছিল যে ভবিষ্যতের সমস্ত দ্বন্দ্ব স্বল্পমেয়াদী যুদ্ধ হবে তবে রুশ-ইউক্রেন যুদ্ধ ৩ মাসেরও বেশি সময় ধরে চলছে। সর্বোপরি, ভবিষ্যতের সংঘাতের যে কোনও ক্ষেত্রেই একটি জাতিকে একা লড়াই করতে হবে। সুতরাং আমরা যে আত্মনির্ভর ভারতের কথা বলছি তার জন্য আরও বেশি প্রয়োজন। “