Jojo: সন্তানের বিষয়ে কু কথা বলায় আইনি পথে জোজো

Jojo: ‘আমি এখনও আইনি পদক্ষেপ নিইনি। কিন্তু নিতে পারি শীঘ্রই। আসলে আগে কখনও এমন কোনও ঘটনার সম্মুখীন হইনি। তাই গোটা বিষয়টা নিয়ে এগোনোর আগে সবটা…

Jojo

Jojo: ‘আমি এখনও আইনি পদক্ষেপ নিইনি। কিন্তু নিতে পারি শীঘ্রই। আসলে আগে কখনও এমন কোনও ঘটনার সম্মুখীন হইনি। তাই গোটা বিষয়টা নিয়ে এগোনোর আগে সবটা ভালো করে জেনে নেওয়া উচিত। তাই পরিবারের সঙ্গে এই বিষয়ে কথা বলছি। এছাড়া এটাও দেখতে হবে যে এটা সাইবার ক্রাইমের আওতায় কিনা। সেখান থেকে সাহায্য পাব কিনা।’ এমনটাই এদিন বলে বসলেন জোজো (Jojo)।

জনপ্রিয় গায়িকাকে আরও বলতে শোনা গিয়েছে যে ‘আমি ভালো বাড়ির ছেলে নিয়েছি না খারাপ বাড়ির ছেলে নিয়েছি, তাতে আপনার কী? আপনি খাওয়াচ্ছেন? আপনি পরাচ্ছেন? আপনি বলার কে। আমি জানি না ওঁনার সন্তান আছে কিনা, এত বড় মহিলা হয়ে ওঁনার জ্ঞান থাকা উচিত, দত্তক নেওয়ার সময় কেউ বেবিকে বেছে নিতে পারে না। আপনার বাচ্চাকে আমির খানের মতো দেখতে না হলে আপনার বাচ্চা নয়, বেচে দেবেন বাজারে? স্বামী হৃতিক রোশন না হলে চুমু খাবেন না? হ্যান্ডসাম লোকের সঙ্গে সম্পর্ক করবেন? আপনাদের মতো মানসিকভাবে অসুস্থ মহিলাদের জন্য বাকি মায়েরা বদনাম হন।’

আসলে সম্প্রতি, কিছুদিন আগে জোজোর একটি ভিডিয়োতে দেখা গিয়েছিল, গায়িকা শো করতে যাওয়ার আগে সাজগোজ করার সময়, তাঁর ছেলে আদি ঘরে তাঁর মেকআপের জিনিসে হাত দিয়ে সেগুলো কী জিজ্ঞাসা করলে তিনি বলেন, এগুলো তো মেক আপ। এরপরেই জোজোর ছেলেকে দেখে বিস্ফোরক মন্তব্য করে বসেন এক নেটিজেন। লেখেন, জোজো ভালো বাড়ির ছেলে দত্তক নিলে ভালো হত। জোজোর সঙ্গে বাচ্চাটিকে নাকি মানাচ্ছেই না। আর এই কমেন্টটি পড়েই রেগে গিয়েছিলেন জোজো।