SIM Card : মোবাইল ব্যবহারকারীদের জন্য বড় খবর, ১ জুলাই থেকে সিম কার্ডের নতুন নিয়ম

মোবাইল সিম কার্ডের (SIM card) জন্য নতুন নিয়ম-কানুন জারি করা হয়েছে। ভারতের টেলিকম রেগুলেটরি অথরিটি (ট্রাই)  ১৫ মার্চ, ২০২৪-এ নতুন নিয়ম জারি করেছে, যা ১…

Illustration of a girl using a mobile phone while being cautious of online fraud.

মোবাইল সিম কার্ডের (SIM card) জন্য নতুন নিয়ম-কানুন জারি করা হয়েছে। ভারতের টেলিকম রেগুলেটরি অথরিটি (ট্রাই)  ১৫ মার্চ, ২০২৪-এ নতুন নিয়ম জারি করেছে, যা ১ জুলাই, ২০২৪ থেকে সারা দেশে কার্যকর হবে। TRAI বলছে, নিয়ম পরিবর্তন করে প্রতারণার ঘটনা বন্ধ করা যাবে। তবে এতে সাধারণ ব্যবহারকারীদের সমস্যায় পড়তে হতে পারে।

নিয়মে কী পরিবর্তন হয়েছে?

নতুন নিয়মের অধীনে, মোবাইল ব্যবহারকারীরা যদি সম্প্রতি তাদের সিম কার্ড অদলবদল করে থাকেন তবে তারা তাদের মোবাইল নম্বর পোর্ট করতে পারবেন না। আমরা আপনাকে বলে রাখি যে সিম বিনিময় করাকে সিম সোয়াপিং বলা হয়। সিম কার্ড হারিয়ে গেলে বা ভেঙে গেলে সিম অদলবদল হয়। যদি এটি ঘটে, আপনি আপনার টেলিকম অপারেটরকে আপনার পুরানো সিমটি একটি নতুন সিম দিয়ে প্রতিস্থাপন করতে বলুন৷

কি লাভ হবে?

TRAI বলছে, জালিয়াতির ঘটনা রুখতে এমন পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। প্রতিস্থাপনের পরপরই মোবাইল কানেকশন সিম অদলবদল বা পোর্ট করা থেকে প্রতারকদের আটকাতে নতুন নিয়ম চালু করা হয়েছে।

সিম অদলবদল

আজকের যুগে সিম সোয়াপিং জালিয়াতি বেড়েছে, এতে প্রতারকরা সহজেই আপনার প্যান কার্ড এবং আধারের ফটো ক্যাপচার করে। এরপর মোবাইল হারানোর অজুহাতে একটি নতুন সিম কার্ড পাওয়া যায়। এর পরে, আপনার নম্বরে প্রাপ্ত ওটিপি প্রতারকদের কাছে পৌঁছে যায়।

TRAI-এর সুপারিশ

TRAI টেলিকমিউনিকেশন বিভাগকে (DoT) একটি নতুন পরিষেবা শুরু করার সুপারিশ করেছে যাতে প্রতিটি ইনকামিং কলের নাম মোবাইল ব্যবহারকারীর হ্যান্ডসেটে প্রদর্শিত হয়, সেই নামটি যোগাযোগের তালিকায় সংরক্ষিত হোক বা না হোক। এর মাধ্যমে প্রতারণার ঘটনা নিয়ন্ত্রণ করা যাবে। তবে এটি গোপনীয়তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে।