Mahiya Mahi: তিন ঘণ্টার জেল জীবন কাটিয়ে অন্তঃসত্ত্বা মাহিয়া পেলেন জামিন

মাহিয়া মাহি বাংলাদেশের ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ। তাঁর স্বামী রকিব সরকার আওয়ামী লীগের নেতা। এরা দুজনেই পুলিশের বিরুদ্ধে ঘুষ নেওয়ার অভিযোগ করতে বিষয়টি রাজনৈতিক মহলে বিতর্ক তৈরি করেছে। বিব্রত শেখ হাসিনার সরকার

810
actress Mahiya Mahi

বাংলাদেশের (Bangladesh) জনপ্রিয় অভিনেত্রী মাহিয়া মাহির (Mahiya Mahi) জেল জীবন সাকুল্যে তিন ঘণ্টা। তিনি জামিন পেলেন। পুলিশের বিরুদ্ধে ঘুষ খাওয়ার অভিযোগ এনে তিনি গ্রেফতার হয়েছিলেন। আদালত তাঁকে জেলে পাঠায়। এই ঘটনায় বাংলাদেশ জুড়ে তীব্র আলোড়ন পড়ে যায়। কারণ, অভিনেত্রী মাহিয়া মাহি (শারমিন আকতার নিপা) ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের ঘনিষ্ঠ। তাঁর স্বামী রকিব সরকার আওয়ামী লীগের নেতা।

মাহিয়া মাহি ও তাঁর স্বামী মক্কায় ধর্মীয় রীতি পালন করতে গিয়ে শুক্রবার সেখান থেকে বাংলাদেশের পুলিশের বিরুদ্ধে ঘুষ খাওয়ার অভিযোগ করেন ফেসবুক লাইভে। শনিবার ঢাকায় ফিরতেই ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে গ্রেফতার হন মাহিয়া মাহি। কিন্তু তাঁর স্বামী বাংলাদেশে ফেরেননি।

মাহিয়া মাহি ৯ মাসের অন্তঃসত্ত্বা, তিনি আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল বলেই তাঁর আইনজীবী  আনোয়ার শাহাদাত আবেদন করেন আদালতে। এর পরেই মাহিয়ার জামিন মঞ্জুর করে আদালত।

অভিনেত্রী মাহিয়া মাহির অভিযোগ করেছেন, তাঁর স্বামীর একটি গাড়ির শোরুম দুষ্কৃতিরা হামলা করে।অফিস তছনছ করে টাকা লুট করে নিয়ে গেছে। ইসমাইল হোসেন ওরফে লাদেন ও মামুন সরকার নামে দুজনের নেতৃত্বে ওই হামলা চালানো হয়েছে বলে অভিযোগ করেন মাহি। পুলিশের বিরুদ্ধে ‘ঘুষ’ নিয়ে হামলাকারীদের মদত দেওয়ার অভিযোগ তোলেন তিনি। মাহির জনপ্রিয়তা তুঙ্গে। তাঁর লক্ষ লক্ষ ফলোয়ার। ফলে তিনি ফেসবুক লাইভ করে পুলিশের বিরুদ্ধেই ঘুষ নেওয়ার অভিযোগ করতেই বিতর্ক প্রবল আকার নেয়।

মাহিয়া মাহি বাংলাদেশের ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ। তাঁর স্বামী রকিব সরকার আওয়ামী লীগের নেতা। এরা দুজনেই পুলিশের বিরুদ্ধে ঘুষ নেওয়ার অভিযোগ করতে বিষয়টি রাজনৈতিক মহলে বিতর্ক তৈরি করেছে। বিব্রত শেখ হাসিনার সরকার। সম্প্রতি বাংলাদেশের উপনির্বাচনে শাসক দল আওয়ামী লীগের হয়ে প্রার্থী হতে মনোনয়নপত্র কিনেছিলেন শারমিন আকতার নিপা (মাহিয়া মাহি)। তবে তাঁকে শেষপর্যন্ত প্রার্থী করেনি আওয়ামী লীগ।

Mahiya Mahi

বাংলাদেশে এর আগে মাদক মামলায় জেলে যেতে হয়েছিল জনপ্রিয় অভিনেত্রী পরীমনিকে (সামসুন্নাহার স্মৃতি)। তিনি পরে জামিন পান। ১৯৭১ সালে পাকিস্তান ভেঙে তৈরি বাংলাদেশের ইতিহাসে পরীমণি ছিলেন প্রথম অভিনেত্রী যাকে জেলে যেতে হয়েছিল। এবার জেলে গেলেন অভিনেত্রী মাহিয়া মাহি (শারমিন আকতার নিপা)।