‘টি এম সি’ থেকে ‘বিদায়’ নিলেন সাংসদ মহুয়া মৈত্র

8832

 

পরিচালক লীনা মণি মণিমেকলেইয়ের তথ্যচিত্র ‘কালী’ ঘিরে তীব্র বিতর্কে জড়িয়েছেন তৃণমূল কংগ্রেল সাংসদ মহুয়া মৈত্র। তিনি একটি অনুষ্ঠানে বলেন, আমার কাছে কালী এমন একজন দেবী যিনি মাংস ও মদ খান। এবার তৃণমূল সাংসদের মন্তব্যের কড়া নিন্দা জানাল তৃণমূল। কালী নিয়ে মহুয়া মৈত্রের মন্তব্য ব্যক্তিগত এবং দল এধরনের মন্তব্যকে সমর্থন করে না। সাফ জানিয়ে দেয় তৃণমূল। বিরোধী দল বিজেপির তরফে গ্রেফতারের দাবি করা হয়েছে। এরপর ট্যুইটারে তৃণমূলকে আনফলো করলেন সাংসদ।

মহুয়া মৈত্র বলেন, আমার কাছে কালী এমন একজন দেবী যিনি মদ ও মাংস খান। আপনার স্বাধীনতা রয়েছে নিজের মতো ঈশ্বরীকে কল্পনা করার৷ কয়েকটি স্থানে তো দেবতাদের উদ্দেশ্যে হুইস্কি উৎসর্গ করা হয়৷ আমাদের এখানে কালীকে এভাবেই কল্পনা করি৷ তাঁকে গ্রেফতারের দাবিতে সরব হয়েছে বিজেপি নেতারা। তাঁদের জবাব দিয়ে মহুয়া ট্যুইটারে লেখেন, ‘আমি কখনওই কোনও চলচ্চিত্রের কোনও পোস্টারের সমর্থন করে ধূমপান শব্দের উল্লেখ করিনি। তারাপীঠে গিয়ে দেখে আসুন সেখানে দেবীকে প্রসাদ হিসেবে কী ধরনের খাবার বা পানীয় দেওয়া হয়।’
মহুয়া লিখেছিলেন, আমি সঙ্ঘীদের বলতে চাই অসত্য বলে আপনারা ভাল হিন্দু হতে পারবেন না।’ এর পরেই তৃণমূলের তরফে স্পষ্ট বার্তা আসে। তৃণমূলের টুইটের পরও একটি টুইট করেছিলেন কৃষ্ণনগরের সাংসদ। সেখানে একটি ছবি পোস্ট করা হয়েছে। সঙ্গে লেখা, ‘সত্যমেব জয়তে’।

তবে তৃণমূলকে আনফলো করলেও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ট্যুইটারে ফলো করছেন তৃণমূল সাংসদ।

(সব খবর, সঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে পান। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram এবং Facebook পেজ)