NBU: উপাচার্য সিবিআই জালে, প্রাক্তনী ও বর্তমান পড়ুয়ারা কটাক্ষের শিকার

উপাচার্যহীন কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়। তাঁর নিয়োগ বেআইনি বলেছে আদাসত।

14

শিক্ষাক্ষেত্রে লাগাতার দুর্নীতির জেরে বিরাট প্রশ্নের মুখে রাজ্যের শাসক দল৷ স্কুল সার্ভিস কমিশনের নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় প্রাক্তন চেয়ারম্যান সুবীরেশ ভট্টাচার্যকে গ্রেফতার করেছে সিবিআই।তিনি উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের (NBU) উপাচার্য। তাঁর গ্রেফতারির পর থেকে বিশ্ববিদ্যালয় জুড়ে থমথমে পরিবেশ। পড়ুয়ারা আতান্তরে।

উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের কাজ আপাতত দেখছেন সহ উপাচার্য৷ কিন্তু তাতেও বিরাট সমস্যায় পড়তে হচ্ছে ছাত্রছাত্রীদের। অবিলম্বে উপাচার্য নিয়োগের দাবি তুলছেন তারা। সেই সঙ্গে চলছে কটাক্ষ। সামাজিকভাবে কটাক্ষের শিকার হচ্ছেন উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের বর্তমান ও প্রাক্তনীরা।

উপাচার্যহীনতায় ভুগছে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়। তাঁর পদাধিকার বৈধতা নিয়েই প্রশ্ন। ২৭ অগাস্ট দ্বিতীয় দফায় উপাচার্যের দায়িত্ব পান সোনালী চক্রবর্তী৷ ১৩ সেপ্টেম্বর কলকাতা হাইকোর্ট কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সোনালী চক্রবর্তী বন্দ্যোপাধ্যায়ের পুনর্নিয়োগ বেআইনি বলে ঘোষণা করে। মামলা সুপ্রিম কোর্টে গড়ালেও রায়দান স্থগিত। ফলত, কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের একাধিক কার্যপদ্ধতি আপাতত সামলাচ্ছেন সহ উপাচার্য আশীষ চট্টোপাধ্যায়।

দুর্গা পুজোর পরেই গোটা রাজ্যে শেষ হবে স্নাতকোত্তরে ভর্তি। ভাইফোঁটার পর ১ নভেম্বর শুরু হওয়ার কথা এমএ, এমএসসি, এমকমের ক্লাস। আগামী ২১ তারিখের মধ্যে ভর্তির প্রক্রিয়া শেষের নির্দেশ দিয়ে উচ্চশিক্ষা দফতর। এর মধ্যে দুই বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য না থাকায় সংশ্লিষ্ট শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটিতে প্রশাসনিক কাজে সমস্যা দেখা দিতে শুরু করেছে।

শিক্ষাক্ষেত্রে ব্যাপক নিয়োগ দুর্নীতির মাঝে দুই বিশ্ববিদ্যালয়ের অচলাবস্থা রাজ্যের শিক্ষা দফতরের দিকে প্রশ্ন তুলেছে। বিরাট সমস্যায় পড়তে হচ্ছে পড়ুয়াদের। বিভ্রান্ত হচ্ছেন শিক্ষক-শিক্ষিকা ও আধিকারিকরাও।