HomeWest BengalBirbhum: তন্ত্রপীঠ তারাপীঠে রহস্যজনক মৃতদেহ উদ্ধার

Birbhum: তন্ত্রপীঠ তারাপীঠে রহস্যজনক মৃতদেহ উদ্ধার

- Advertisement -

তন্ত্রপীঠ তারাপীঠে ফের রহস্যজনক মৃত্যু। বীরভূমের তারাপীঠ থানার তারাপুর গ্রামের স্থানীয় বাসিন্দারা পুকরের জলে মৃতদেহটি ভাসতে দেখেন। মৃতদেহটি পচে গেছে। ভয়াবহ সেই দৃশ্য। খবর পেয়ে পুলিশ আসে।পুকুরের জল থেকে উদ্ধার করা হয় তারাপীঠের এক ব্যাক্তির পচাগলা মৃতদেহ। বীরভূম (BIrbhum) জেলার তারাপীঠে এর আগেও বেশ কয়েকবার মৃতদেহ মিলেছে। সম্প্রতি কৌশিকী অমাবস্যায় বিপুল ভক্ত সমাগম হয়।

পুকুরের জল থেকে উদ্ধার হল তারাপীঠের এক ব্যক্তির পচাগলা মৃতদেহ। ঘটনাটি বীরভূমের তারাপীঠ থানার তারাপুর গ্রামের। মৃতের নাম নিমাই চৌধুরী বাড়ি বীরভূমের মাড়গ্রাম থানার বসোয়া গ্রামে। তিনি তারাপীঠ এলাকায় পোল্ট্রি মুরগির ব্যবসা করতেন। প্রশ্ন উঠছে তিনি যদি জলে ডুবেই মারা যান তাহলে তার মৃত্যু কখন হয়। পুকুরে স্নান করার সময় তলিয়ে গেলে দীর্ঘ সময় পর তিনি নিখোঁজ অথচ কেউ জানে না! তাঁকে কেউ মেরে পুকুরে ফেলে দিয়েছে বলেও সন্দেহ তীব্র। মৃতদেহের ময়না তদন্ত হলে মৃত্যুর কারণ জানা যাবে।

মঙ্গলবার সকালে স্থানীয় বাসিন্দারা মৃতদেহটি জলের উপরে ভাসতে দেখেন। পুলিশে খবর দিলে তারাপীঠ থানার পুলিশ এসে মৃতদেহটি উদ্ধার করে নিয়ে যায়। মৃতের দাদার অভিযোগ তার ভাইকে খুন করা হয়েছে। মৃতের দাদা প্রবীর কুমার চৌধুরী জানিয়েছেন, “আমার ভাই পোল্ট্রি ফার্মে কাজ করতো। ওর সঙ্গে একই ফার্মে ছিল সিদ্ধার্থ নামের একজন ব্যক্তি সেই খুন করেছে এবং ফেলে রেখে গিয়েছে”।

মৃত ব্যক্তির ব্যবসায়ী পার্টনার সিদ্ধার্থ ঘোষকে আটক করেছে পুলিশ। পুলিশ গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। তবে এই খুনের ঘটনায় রীতিমতো উত্তপ্ত গোটা এলাকা। মৃতের পরিবারের দাবি দোষীদের যেন দ্রুত শাস্তি দেওয়া হয়।

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম

এই সংক্রান্ত আরও সংবাদ