Shovan-Baisakhi Relationship: বৈশাখী-শোভনের ‘বিয়ে’তে ‘বাঁশ’ হলেন রত্না

809

নিউজ ডেস্ক: বিজয়া দশমীর অনুষ্ঠানে বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়কে (Baishakhi Banerjee) সিঁদুর পরিয়ে সোহাগ করে আলতো আদর করেন শোভনবাবু (Sovan Chatterjee)।

দুজনের ‘বিয়ে’ নিয়ে তৈরি হচ্ছে জটিলতা। একসঙ্গে থাকা বা সিঁদুর পরালেই এখন দম্পতি বলে স্বীকৃত নয়, দরকার আইনি স্বীকৃতি। সেটাই নেই শোভন-বৈশাখীর। আবার দুজনেই পূর্ববর্তী বিবাহিত জীবনের ছেদ করেননি। 

দেখুন বৈখাশীর সিঁথিতে শোভনের সিঁদুরদানের ভিডিও

আইনের এই প্যাঁচেই এখানেই আইনত স্বামী শোভন চট্টোপাধ্যায়কে চাপে রাখতে মরিয়া রত্না চট্টোপাধ্যায়। দুর্গা মূর্তির সামনে বৈশাখীকে সিঁদুর পরানো নিয়ে কটাক্ষ করেছেন রত্না। তিনি বলেন, দুর্গা প্রতিমার পিছনে যে বাঁশ থাকে আমিই সেই বাঁশ। ওরা বিয়ের কথা ভাবুক, দেখছি আমি কী করা যায়।

রত্না বলেছেন, আইনত ও এখনও আমার স্বামী। আমি স্ত্রী। ডিভোর্স আমি দেবই না। যথারীতি রত্না উবাচ হয়েছে ভাইরাল। এর পরেই প্রশ্ন উঠছে, রত্না যেভাবে ডিভোর্স দেবেন না বলেছেন তাতে আইনি জটিলতায় পড়বেন কলকাতার প্রাক্তন মেয়র।

তবে নতুন বিয়ের রাতেই আবেগ যুক্তি সাজিয়ে বেড়াল মেরেছেন বৈশাখী। দশমীর রাতে তিনি সিঁদুর পরেই জানান,’শোভনবাবুর সঙ্গে তাঁর যে সম্পর্ক তাতে স্বীকৃতির অভাব ছিল না কোনওদিনই।’ স্বীকৃতি নিয়ে প্রশ্ন। আইনি নাকি ‘আদর৷