সন্দেশ ঝিঙ্ঘানকে ঘিরে টুইট পোস্ট ভাইরাল সোশাল মিডিয়াতে

22
Sandesh Jhinghan

ডুরান্ড কাপের গ্রুপ পর্ব থেকে ছিটকে যাওয়া এবং এএফসি ইন্টারজোনাল সেমিফাইনাল ম্যাচে কুয়ালালামপুর সিটি এফসি’র বিরুদ্ধে জিততে না পারার জেরে ATK মোহনবাগান (ATK Mohun Bagan) দলের হেডকোচ হুয়ান ফেরান্দোর ফুটবল বোধ ঘিরে এখন বড়সড় প্রশ্নচিহ্ন উঠে এসেছে। এর পাশাপাশি সবুজ মেরুন স্কোয়াডে ফিজিয়ান ‘গোল্ডেন বয়’ রয় কৃষ্ণ এবং ডিফেন্সে সন্দেশ ঝিঙ্ঘানের (Sandesh Jhinghan) না থাকাটাও হাড়ে হাড়ে টের পাচ্ছে বাগান থিঙ্ক ট্যাঙ্ক।

স্ট্রাইকার রয় কৃষ্ণ এবং ডিফেন্সে সন্দেশ ঝিঙ্ঘান দুজনেই এবার বেঙ্গালুরু এফসি(BFC) দলে নাম লিখিয়েছে। আর এই দুই ফুটবলারের যোগদানের ফলে BFC দল ধারে ও ভারে কতটা শক্তিশালী হয়ে উঠেছে তা ১৩১ তম ডুরান্ড কাপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে দেখিয়ে দিয়েছে বেঙ্গালুরু এফসি(BFC)। এই কারণে সবুজ মেরুন সমর্থকরা চোখের সামনে কৃষ্ণ লীলা সঙ্গে পাহাড়ি বাধার মতো সন্দেশ ঝিঙ্ঘানের পারফরম্যান্স দেখে ডুকরে ডুকরে কেঁদে চলেছে। কেন? প্রিয় দল ATK মোহনবাগানের রয় কৃষ্ণ এবং সন্দেশ ঝিঙ্ঘানকে রিলিজ দিয়ে দেওয়ার ভুল সিদ্ধান্তে। কাদের ভুল সিদ্ধান্ত? ভুল সিদ্ধান্ত ATK মোহনবাগান টিম ম্যানেজমেন্টের।

শুক্রবার, ইন্ডিয়ান সুপার লিগ (ISL) টুইটার হ্যান্ডেল থেকে বেঙ্গালুরু এফসি ফুটবলার সন্দেশ ঝিঙ্ঘানকে নিয়ে টুইট পোস্টের ক্যাপসনে লেখা হয়েছে,”
@bengalurufc ফ্যানেসরা, আপনারা কি @SandeshJhinganকে ভরা শ্রী কান্তিরভা স্টেডিয়ামের সামনে খেলা দেখার জন্যে উত্তেজিত!
#HeroISL #LetsFootball #SandeshJhingan… স্বভাবতই, এই টুইট পোস্ট নিঃসন্দেহে ATK মোহনবাগানের ভুল সিদ্ধান্তের প্রেক্ষিতে প্রিয় দলের ‘ব্যর্থতা যন্ত্রণা’ সবুজ মেরুন সমর্থকদের মধ্যে বহুগুণ বাড়িয়ে তুলবে।

অবশ্য, ২০২২-২৩ ফুটবল সেশনের শুরুতে ডুরান্ড কাপ এবং এএফসি ইন্টারজোনাল সেমিফাইনাল ম্যাচের সামগ্রিক ভরাডুবি নিয়ে ATK মোহনবাগান হেডকোচ হুয়ান ফেরান্দো ইতিমধ্যেই সাফাই গেয়ে শুনিয়েছেন ‘টেকনিক্যাল সিদ্ধান্ত’। যদিও ফেরান্দোর এই ফুটবল দর্শনে চিড়ে আদৌ ভেজেনি, চিড়ে ভেজার কথাও নয়। কারন, আবেগের সঙ্গে পেশাদারিত্বর সংঘাত এখন বেঁধেছে। তাই ATK মোহনবাগানে সরু সুতোয় ঝুলছে হুয়ান ফেরান্দোর কোচিং ভাগ্য।