কলকাতায় আসার আগে তাভোরার বার্তা মেরিনার্স ক্যাম্পকে

56
Sahil Tavora

আগামী শনিবার, কেরালা ব্লাস্টার্স এফসির বিরুদ্ধে ইন্ডিয়ান সুপার লিগে (ISL) হায়দরাবাদ এফসি তাদের প্রথম পরাজয়ের মুখোমুখি হয়েছিল কিন্তু টেবলের শীর্ষে রয়েছে। তাদের পরবর্তী ম্যাচে ATK মোহনবাগানের বিরুদ্ধে শনিবার কলকাতায় তারা আরেকটি কঠিন চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হবে।

অন্যদিকে, মেরিনার্সরা ফতোরদায় এফসি গোয়ার বিরুদ্ধে তিন পয়েন্ট হাতছাড়া করায় লিগে টপার হওয়ার সুযোগ হারিয়ে ফেলেছে। ফলে সবুজ মেরুন শিবির ঘরের মাঠ যুবভারতী ক্রীড়াঙ্গনে উইনিং ট্র‍্যাকে ফিরে আসতে চাইবে। ফলে শনিবার যুবভারতীতে দুদলের মধ্যে হাড্ডাহাডি লড়াই হতে চলেছে।
হায়দরাবাদ এফসি দলে অনেক ভালো খেলোয়াড় রয়েছে। শক্তি এবং সামর্থ্যে তারা সবুজ মেরুন খেলোয়াড়দের থেকে কোনও অংশেই কম নয়।এদের মধ্যে অন্যতম সাহিল তাভোরা ভারতীয় ফুটবলের এক উজ্জ্বল নাম। হায়দরাবাদ এফসির প্রথম এগারোতে সাহিল নিজের জায়গা পাকাপোক্ত করে রেখেছেন দুরন্ত পারফরম্যান্সের জেরে।গত বছরের ফাইনালে কেরালা ব্লাস্টার্স এফসিকে পেনাল্টিতে পরাজিত করার কারণে এই মিডফিল্ডার ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নদের জন্য ‘তুরুপের তাস’।

হায়দরাবাদ চলতি ইন্ডিয়ান সুপার লিগে শিরোপা রক্ষা করতে চাইছে। তাভোরা টিমের হেডকোচ মানোলো মার্কেজের প্রশংসা করতে গিয়ে বলেছেন, দলের খেলোয়াড়দের মধ্যে একটি ঘনিষ্ঠ বন্ধন তৈরি করতে তার জুড়িমেলা ভার।নিজের দলের পরিবেশ নিয়ে তাভোরা আরও জানান,” হায়দরাবাদ অন্যান্য দলের থেকে আলাদা কারণ এখানে পারিবারিক অনুভূতি রয়েছে। আমরা সবাই বন্ধু, আমরা মজা করি এবং একসাথে খাই। আমরা এটা তৈরি করেছি এবং আমি বিশ্বাস করি এটা আমাদের যা অর্জন করেছে তা অর্জন করতে সহায়তা করেছে।”

সাহিল তাভোরা এই সাক্ষাৎকার থেকে পরিষ্কার লিগে কেরালা ব্লাস্টার্স এফসির বিরুদ্ধে শেষ ম্যাচে হেরে গেলেও মোটেও হতাশ নয়,বরং চ্যাম্পিয়ন শিরোপা ধরে রাখতে মরিয়া গোটা শিবির। তাই কলকাতার মাটিতে পা রাখার আগেই ATK মোহনবাগানের বিরুদ্ধে তিন পয়েন্ট ‘পাখির চোখ’ এটা ঠারেঠোরে বুঝিয়ে দিচ্ছে যা খেলার মাইন্ড গেমেরই অংশ।

(সব খবর, সঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে পান। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram এবং Facebook পেজ)