Bhaichung Bhutia: সবুজ-মেরুনের পারফর্মেন্স নিয়ে এবার মুখ খুললেন বাইচুং

3820
baichung bhutia
Advertisements

একটা সময় দলের জার্সি পড়ে দাপিয়ে বেরিয়েছেন গোটা ময়দান। লাখো লাখো ফুটবল সমর্থকদের আশা ও ভরসা জুগিয়েছেন তিনি। প্রতিপক্ষের রাতের ঘুম কেড়েছিলেন বহুবার। তিনি বাইচুং ভুটিয়া (Bhaichung Bhutia)। ভারতীয় ফুটবলের অন্যতম রত্ন। গতকাল এটিকে মোহনবাগানের ম্যাচ দেখতে ছেলেকে নিয়ে যুবভারতীতে হাজির হয়েছিলেন তিনি। আজ থেকে বেশ কিছু বছর আগে লাল-হলুদের পাশাপাশি সবুজ-মেরুন সমর্থকরা তার জন্য গলা ফাটালে ও এবার সেই মোহনবাগান ক্লাবের জন্য গলা ফাটালেন খোদ বাইচুং ভুটিয়া। সঙ্গে রয়েছে ছেলে উগেন ভুটিয়া।

কোচের কথা মতো নির্ধারিত নব্বই মিনিটে খেলায় রাশ টানার কথা শোনা গেলেও আদতে তা হয়নি। বরং ট্রাইবেকারে গিয়ে জয় ছিনিয়ে নিতে হয়েছে প্রীতমদের। যা নিয়ে কিছুটা হলেও হতাশ থাকতে দেখা গিয়েছে বাইচুং কে। দেশের এই প্রাক্তন অধিনায়কের কথায়, নিজেদের ঘরের মাঠে খেলা। তবুও মোহনবাগান যথেষ্ট রক্ষণাত্মক ফুটবল খেলছে। একটু বাড়াতেই পারত দলের ফুটবলাররা।

Advertisements

পাশাপাশি হায়দরাবাদের তরফে ও যে বেশ রক্ষনাত্মক খেলার পরিকল্পনা ছিল তা বুঝতে পেরে ছিলেন এই ফুটবল তারকা। যারফলে অতিরিক্ত সময় পর্যন্ত খেলা গড়ানোর ইঙ্গিত অনেক আগেই দিয়ে ছিলেন তিনি। ঠিক তেমনই হল। প্রীতমের শটেই বাজিমাত বাগানের। কিন্তু এরপরেও দলের খেলায় কিছুটা হলেও অখুশি থেকে গিয়েছেন বাইচুং। তার মতে ঘরের মাঠে এটুকু ঝুঁকি নেওয়াই যেত।

Advertisements

সেইসাথে দলের ব্যাপক প্রশংসা ও করতে শোনা যায় তাকে। বাইচুং বলেন, এবছর এটিকে মোহনবাগান যথেষ্ট ভালো দল তৈরি করেছিল। তাই ওদের ফাইনাল খেলা অবাক হওয়ার কিছু নয়। তবে এবার সামনে বেঙ্গালুরু। যারা প্রতিপক্ষ কে এক ইঞ্চি জমি ও ছাড়তে নারাজ। তাই শেষ পর্যন্ত আইএসএল কলকাতায় আসে কিনা এখন সেটাই দেখার।

Advertisements