Friday, February 3, 2023

World Cup: পোল্যান্ডকে ৩-১ গোলে হারিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে ফ্রান্স

- Advertisement -

World Cup: পোল্যান্ডকে হারিয়ে তৃতীয় দল হিসেবে কোয়ার্টার ফাইনালে জায়গা করে নিল ফ্রান্স। দোহার আল থুমামা স্টেডিয়ামে শেষ ষোলোর ম্যাচে ৩-১ গোলে হারাল ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নরা। ম্যাচের শুরু থেকে আক্রমণের রেস ধরে রেখে জয় ছিনিয়ে নিল দিদিয়ের দেশমের দল।ফ্রান্সের হয়ে জোড়া গোল করেন কিলিয়ান এমবাপে ও একটি গোল আসে অলিভিয়ে জিরুদের পাস থেকে। এই গোলে থিয়েরি অঁরিকে টপকে ফ্রান্সের সর্বোচ্চ স্কোরার হলেন জিরুদ। অন্যদিকে জোড়া গোল করে বিশ্বকাপে ৯ গোল করে ফেললেন এমবাপে।

ম্যাচের শুরু থেকেই আক্রমণ ও বল দখলে আধিপত্য দেখাল ফ্রান্স। সুযোগ গড়েও কিন্তু গোলের দেখা পাচ্ছিল না ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নরা। ২৯ মিনিটে সহজ সুযোগ মিস করেন জিরুদ। দেম্বেলের পাস থেকে ফাঁকা গোলেও গোল করতে ব্যর্থ হন ফরাসি ফরোয়ার্ড। শুরুতে সেইভাবে আক্রমণেই উঠতে পারল না পোল্যান্ড। আস্তে আস্তে খেলায় ফেরে তাঁরা। ৩৮ মিনিটে প্রায় গোলই করে দিচ্ছিল পোল্যান্ড। পিওতর জেলিনস্কির শট পা দিয়ে রুখে দেন হুগো লরিস। ফিরতি বলে জেলিনস্কির আরেকটি প্রচেষ্টা রুখে দেন ফরাসি ডিফেন্ডার উপেমেকানো।

এরপর ইয়াকুব কামিনিস্কির শট বের করে দেন রাফায়েল ভারান। প্রথমার্ধের শেষ দিকে দলকে এগিয়ে দিলেন অলিভিয়ে জিরুদ। ৫২ গোল করে ফ্রান্সের সর্বোচ্চ গোলদাতার রেকর্ডে থিয়েরি অঁরিকে ছাড়িয়ে শীর্ষে উঠলেন ফরাসি ফরোয়ার্ড।প্রতি আক্রমণ থেকে ৭৪ মিনিটে দেম্বেলের পাস খুজে পায় বক্সের কোণায় দাঁড়িয়ে থাকা এমবাপ্পেকে। ডান পায়ে এমনই এক শট নিলেন সেজনির কোনো উপায় ছিল না সেই শট ফেরানোর। এই গোলে পর্তুগাল কিংবদন্তি ইউসেবিওকে সরিয়ে বিশ্বকাপে নিজেকে অন্য উচ্চতায় নিয়ে গেলেন পিএসজি ফরোয়ার্ড। ২৩ বছর ৩৪৯ বয়সে বিশ্বকাপে সবচেয়ে কম বয়সী ৮ গোলের মালিকের নাম এখন এমবাপে।

- Advertisement -

অতিরিক্ত সময়ে আবারও গোল এমবাপের।মার্কাস থুরামের পাস থেকে ডান প্রান্ত ধরে আবারও শট এমবাপ্পের। আবারও হার মানেন সেজনি। এই বিশ্বকাপে দলের বড় জয় নিশ্চিত করেন এমবাপ্পে। এবারের বিশ্বকাপের ৫ গোলসহ দুই বিশ্বকাপ মিলিয়ে ফরাসি ফরোয়ার্ডের গোল এখন ৯টি। গোল্ডেন বুটের লড়াইয়ে বাকিদের তুলনায় এখন তিনি স্পষ্ট এগিয়ে। পোল্যান্ড এক গোল শোধ দেয় ম্যাচের অন্তিম সময়ে। পেনাল্টি থেকে দুই দফায় গোল করেন লেভানডভস্কি। ফ্রান্সের হয়ে রেকর্ড ১৪২ তম ম্যাচে প্রথমে লেভার শট ফিরিয়েছিলেন হুগো লরিস। কিন্তু শট ঠেকাতে সামনে এগিয়ে আসায় আবারও শট নেওয়ার সুযোগ পান লেভানডস্কি। দ্বিতীয় দফায় গোল করে সান্ত্বনার গোল তুলে নেন পোলিশ অধিনায়ক।