মরসুমের শুরুতেই হোঁচট খেয়ে সেলফিতে মজে লাল-হলুদ সমর্থকরা

212
East Bengal fans took selfies

১৩১ তম ডুরান্ড কাপে ২০২২-২৩ ফুটবল মরসুমের শুরুতেই হোঁচট খেয়েছে ইমামি ইস্টবেঙ্গল (East Bengal) শিবির। টাইটেলশিপের নিয়মরক্ষার ম্যাচে অবশ্য মুম্বই সিটি এফসিকে ৪-৩ গোলের ব্যবধানে হারিয়েছিল ইস্টবেঙ্গল। সেশনের শুরুতে মাঠে আহামরি পারফরম্যান্সের ছাপ রাখতে না পারলেও লাল হলুদ সমর্থকদের মধ্যে প্রিয় দল এবং প্রিয় দলের খেলোয়াড়দের নিয়ে উৎসাহ উদ্দীপনায় মোটেও ভাটা পড়তে দেখা যাচ্ছে না।

গত ইন্ডিয়ান সুপার লীগে (ISL) নাওরেম মহেশ সিংর জোড়া গোলে এফসি গোয়ার বিরুদ্ধে শেষ জয়ের মুখ দেখেছিল এসসি ইস্টবেঙ্গল। তখন কোচ ছিলেন মারিও রিভেরা। গত ISL টুর্নামেন্টে জয় আর চলতি বছর ডুরান্ড কাপে জয় এই দুই’র মাঝে পদ্মা নদী দিয়ে অনেক জল বয়ে গিয়েছে। টানা ৫ টি ডার্বি ম্যাচের রঙ সবুজ মেরুন তা ভোলার নয়। লাল হলুদ জার্সিতে লাস্ট বয়ের তকমা সেটে রয়েছে, এখনও তা মুছে যায় নি। এমন আবহেই সবকিছু ভুলে গিয়ে আত্মহারা হয়ে উঠেছে লাল হলুদ সমর্থকরা।

সাত সকালেই লাল হলুদ সমর্থকরা হেডকোচ স্টিফেন কনস্টাটাইন, ফুটবলার ক্লেইটন সিলভা সহ অন্যান্য খেলোয়াড়দের সঙ্গে মোবাইলে নিজেদেরকে সেলফিতে বন্দি করে রাখতে উঠেপড়ে লেগেছে। লাল হলুদ ফুটবলারদের নিয়ে সমর্থকদের এই উচ্চাশা মোটেও অস্বাভাবিক কিছুই নয়,সমর্থকরাই হল প্রাণভোমরা! কিন্তু গোটা পরিস্থিতি অস্বাভাবিক লজ্জার হয়ে ওঠে যখন শতাব্দী প্রাচীন ইস্টবেঙ্গল ক্লাবে আই লিগ ঢোকেনা, ISL’র মতো ‘বস্তা পচা’ টুর্নামেন্টে লাস্ট বয় হয়ে থাকতে হয়।

ISL টাইটেলশিপ ‘বস্তা পচা’ টুর্নামেন্ট। কারণ এই টুর্নামেন্ট এখনও পর্যন্ত ভারতের জাতীয় ফুটবল দলে ‘তাজা রক্তে’র প্রবেশ ঘটাতে ব্যর্থ হয়েছে। ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (IPL) যেভাবে টিম ইন্ডিয়াকে ভরসা জুগিয়ে দলের সাপ্লাই লাইনে তরুণ তাজা রক্তের জোগান দিয়ে চলেছে,এই নিরিখে ISL টুর্নামেন্টকে ব্যর্থ একটি বস্তা পচা টুর্নামেন্ট বলতে কোনও বাধা নেই। আর সমর্থকরাও এই টুর্নামেন্টে প্রিয় দলের খেলা না খেলা নিয়ে, কোন নামে খেলছে,কোন নামে খেলছে না(#Remove ATK) এরকম ইস্যুতে হারিয়ে গিয়েছে। সস্তার চমকে সমর্থকরা আজ ‘অন্ধ ধৃতরাষ্ট্র’ হয়ে গিয়েছে।

(সব খবর, সঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে পান। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram এবং Facebook পেজ)