19 C
Kolkata
Sunday, February 5, 2023

Captain Kohli: নেটিজেনদের তোপের মুখে ক্যাপ্টেন কোহলি

- Advertisement -

স্পোর্টস ডেস্ক: এটা প্রথমবার নয়, নিশ্চিতভাবে শেষবারের মতোও হবে না যখন ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি আতসবাজি (পটকা) মুক্ত দীপাবলি উদযাপনের বিষয়ে নিজের করা টুইটের জন্য নেটিজেনদের তোপের মুখে পড়েছেন।

- Advertisement -

ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি বর্তমানে পুরুষদের আইসিসি টি-২০ বিশ্বকাপ ২০২১’র প্রস্তুতি নিচ্ছেন সংযুক্ত আরব আমিরশাহিতে। সম্প্রতি ক্যাপ্টেন কোহলি টুইটারে নিজের একটি ভিডিও পোস্ট করে ক্যাপশন দিয়েছেন, “আগামী কয়েক সপ্তাহের মধ্যে, আমি আমার ব্যক্তিগত টিপসগুলির একটি সিরিজ শেয়ার করব প্রিয়জন এবং পরিবারের সঙ্গে একটি অর্থপূর্ণ দীপাবলি উদযাপনের জন্য। আমার Pinterest প্রোফাইল ‘viratkohli’ অনুসরণ করে আমাদের সাথে থাকুন”।

- Advertisement -

কোহলির টুইট করা ওই ভিডিওতে কোভিড -১৯ এবং গত বছরগুলি কীভাবে মানুষের জন্য কঠিন ছিল সেই সম্পর্কে কথা বলেন। ভিডিওতে মিষ্টির ছবি এবং তার কাজ করার ক্লিপও দেখানো হয়েছে। আর ওই ভিডিও মাইক্রো ব্লগিং সাইট টুইটারে ভাইরাল হতেই নেটিজেনরা বিশ্বাস করেছিলেন যে তিনি আতসবাজি (পটকা) সম্পর্কে কথা বলছেন এবং সঙ্গে সঙ্গে বিরাট কোহলিকে ট্রোল করা শুরু হয়ে যায়।

টুইটটি ভাইরাল হতেই, নেটিজেনরা #সুনোকোহলি ট্রেন্ড করতে শুরু করে এবং তার মন্তব্যের জন্য তাকে কড়া ভাষায় কটূক্তি সহ রি টুইট শুরু করা শুরু হয়। ভাইরাল এই বার্তাটি সোশাল মিডিয়ায় অনেকেই ভালভাবে মেনে নেয় নি, কারণ অনেকে তাকে ভণ্ড বলে অভিহিত করেছেন এবং কেউ কেউ বলেছেন যে কোহলির পরিবেশ নিয়ে উদ্বেগ ভুল।

আর কোহলির পরিবেশ সংক্রান্ত উদ্বেগ নিয়ে পাল্টা ট্রোল করা হয়েছে। #সুনোকোহলি গাড়ি এবং এসি ব্যবহার বন্ধ করুন এটি পরিবেশের জন্য খুবই ক্ষতিকর। ট্রোলিং’এ উঠে এসেছে#সুনোকোহলি #বিরাট কোহলি শুধুমাত্র হিন্দু উৎসব দিওয়ালির সময় পরামর্শ দিয়েছে, #দিওয়ালি মানুষের আনন্দের প্রতিক্রিয়া

আবার আরেকজন সস্ত্রীক বিরাট কোহলিকে ট্রোল করে লিখেছে, #সুনোকোহলি #দিওয়ালি লে ইন্ডিয়ানদের কোহলি এবং তার স্ত্রীকে দিওয়ালির পরামর্শ দিতে চান। অনেক সোশাল মিডিয়া ব্যবহারকারী এমনকি খুব আপত্তিকর হ্যাশট্যাগ ট্রেন্ড করেছেন, তখন কেউ কেউ আবার বিরাট কোহলির পাশে এসে দাঁড়িয়েছে।

টি-২০ বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচ খেলার আগে ভারত প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে, ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে সোমবার ১৮ অক্টোবর। আইসিসি পুরুষদের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ২০২১’এ চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ২৪ অক্টোবর মাঠে নামার আগে এই প্রস্তুতি ম্যাচ খুবই গুরুত্বপূর্ণ।