Nisith Pramanik: চুরির মামলায় গ্রেফতারি নির্দেশের পর মন্ত্রী নিশীথ কোথায় ? দিল্লি সরগরম

40

নিশীথ প্রামানিক (Nisith Pramanik) কি চুরির অভিযোগে গ্রেফতার হবেন, এই প্রশ্নে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকেও শোরগোল। নিশীথ কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহর (Amit Shah) সহকারী। ফলে বিজেপি (BJP) আরও বিব্রত।

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর মতো অতি গুরুত্বপূর্ণ পদে থেকেও নিশীথ প্রামানিকের মোবাইল অফ! তিনি কোথায়? এ বিষয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক নীরব। তেমনই নীরব বিজেপি। কোচবিহারের সাংসদের বিরুদ্ধে দুটি সোনার দোকানে চুরির মামলায় আলিপুরদুয়ার আদালত জারি করেছে গ্রেফতারি পরোয়ানা।

Nisith-pramanik

আগামী ৭ ডিসেম্বরের মধ্যে নিশীথ প্রামানিককে গ্রেফতারের নির্দেশ দিয়েছেন বিচারপতি। ওই তারিখের মধ্যে নিশীথকে গ্রেফতার করতে না পারলে পুলিশকে জবাবদিহি করতে হবে, এমনও নির্দেশ দিয়েছেন বিচারপতি।

আলিপুরদুয়ার আদালতের সরকারি আইনজীবী প্রশান্ত নারায়ণ মজুমদার বলেন, নিশীথ প্রামানিককে আদালতে হাজিরা দিতে বারবার যোগাযোগ করা হয়েছিল। তাঁকে পাওয়া যায়নি। সেই জন্যই থার্ড কোর্টের বিচারক কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী নিশীথ প্রামাণিকের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছেন।

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর আইনজীবী দুলাল ঘোষ জানান, ১১ নভেম্বর ফার্স্ট কোর্টে আমি বিকেল চারটে পর্যন্ত উপস্থিত ছিলাম। কোনও শুনানি হয়নি। পরে সাতটা নাগাদ থার্ড কোর্টের বিচারক এই নির্দেশ দিয়েছেন বলে শুনেছি। আমার অজ্ঞাতে এই নির্দেশ হয়েছে। আমরা ভবিষ্যতে কী করব তা পরে জানাব।

মামলার তারিখ অনুসারে দেখা যাচ্ছে ২০০৯ সালে তৃ়ণমূল কংগ্রেসে থাকাকালীন নিশীথ প্রামানিকের বিরুদ্ধে দুটি চুরির ঘটনায় অভিযোগ দায়ের হয়েছিল।

  • ২০১৯ সালে তৃণমূল কংগ্রেস ছেড়ে নিশীথ যোগ দেন বিজেপিতে
  • লোকসভা নির্বাচনে কোচবিহার থেকে জয়ী হন
  • নিশীথ প্রামানিককে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের রাষ্ট্রমন্ত্রী করা হয়

মঙ্গলবার নিশীথের নামে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির পর থেতে উত্তরবঙ্গ আলোড়িত। কোচবিহারের সাংসদের বাড়ি (Dinhata) দিনহাটার ভেটাগুড়িতে। সেখানেও চাপা উত্তেজনা। আর প্রতিবেশি জেলা (Alipurduar) আলিপুরদুয়ারেও চাঞ্চল্য। আলিপুরদুয়ার ও বীরপাড়ায় দুটি সোনার দোকানে চুরির মামলায় নিশীথ প্রামানিকের নাম আছে।

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নিশীথ প্রামানিকের বিরুদ্ধে গ্রেফতারির পরোয়ানা জারি হতেই তীব্র প্রতিক্রিয়া দেন উত্তরবঙ্গ উন্নয়নমন্ত্রী (Udayan Guha) উদয়ন গুহ। দিনহাটার তৃণমূল কংগ্রেস (TMC) বিধায়ক উদয়ন বলেন, আইন সবার ক্ষেত্রেই সমানভাবে প্রযোজ্য। আদালতে হাজিরা না দিলে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি হয়। এটা সবাই জানেন। কেউ যদি মনে করেন আমি এমএলএ, এমপি বা মন্ত্রী আমার ক্ষেত্রে আলাদা আইন হবে। সেটা তো হয় না।

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বনাম উত্তরবঙ্গ উন্নয়নমন্ত্রীর তীব্র রাজনৈতিক বাদানুবাদে বারবার গরম হয়েছে রাজনৈতিক মহল। সম্প্রতি নিশীথের কনভয়ে হামলার পর সেই উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় আরও বেড়েছিল।

নিশীথের নামে গ্রেফতারি পরোয়াানা জারির পর কোচবিহার জেলা বিজেপি সভাপতি সুকুমার রায় বলেন, আইনিভাবে যেটা হওয়ার সেটা হবে। অনেক নেতার নামেই অনেক সময় গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি হয়। আদালতকে অস্বীকার করা যাবে না। 

Nisith-pramanik

নিশীথ প্রামানিকের বিরুদ্ধে অভিযোগে বলা হয়েছে, ২০০৯ সালে আলিপুরদুয়ার শহরের বাদল নগরে জয়গুরু জুয়েলার্সে চুরির ঘটনা ঘটেছিল। সেই বছর ২ মে আলিপুরদুয়ার থানায় অভিযোগ জানিয়েছিলেন  দোকানের মালিক রতন ঘোষ।  কয়েকদিন পর বীরপাড়ার পাল জুয়েলার্সে চুরির ঘটনা ঘটেছিল। ১৩ মে সেই চুরির  ঘটনায় আলিপুরদুয়ার থানায় অভিযোগ দায়ের হয়। দুটি সোনার দোকানে চুরির ঘটনায় অভিযুক্ত  নিশীথ প্রামানিক।

আলিপুরদুয়ারে সোনার দোকানে  চুরির মামলায় গত ১২ জুলাই বিধাননগরে এমপি, এমএলএ কোর্টে আত্মসমর্পণ করেন নিশীথ প্রামাণিক। আদালত পাঁচ হাজার টাকার ব্যক্তিগত বন্ডে তাঁর জামিন মঞ্জুর করে। এবার আলিপুরদুয়ার আদালত থেকে নিশীথ প্রামানিকের বিরুদ্ধেই জারি হয়েছে গ্রেফতারি পরোয়ানা।

সম্প্রতি উত্তরবঙ্গ ভেঙে আলাদা কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল গঠনের জন্য যে বিতর্ক উঠেছে তাতে নিশীথ প্রামানিক বলেন একমাস অপেক্ষা করুন। শিলিগুড়িতে তিনি ও গ্রেটার কোচবিহার নেতা অনন্ত মহারাজ দীর্ঘ বৈঠক করেন। এরপর অনন্ত দাবি করেন রাজ্য ভাগ হচ্ছেই। আর কোচবিহারে নিশীথের কনভয়ে হামলায় অভিযুক্ত হয় তৃণমূল কংগ্রেস। দিনহাটার বিধায়ক ও উত্তরবঙ্গ উন্নয়নমন্ত্রী উদয়ন গুহর সঙ্গে তীব্র উত্তেজক রাজনৈতিক বাদানুবাদে চলে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী নিশীথ প্রামানিকের।

(সব খবর, সঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে পান। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram এবং Facebook পেজ)