TMC: সাঁইথিয়ার পর কেশপুরে প্রবল বিস্ফোরণ, জখম তৃণমূল সমর্থক

পশ্চিম মেদিনীপুর ও বীরভূম দুটি জেলা রাজনৈতিক কারণে দশকের পর দশক ধরে রক্তাক্ত হয়ে আসছে

31

পঞ্চায়েত ভোটের (Panchayat Election)আগে থেকেই বিস্ফোরণে কাঁপতে শুরু করেছে গ্রামবাংলা। বীরভূমের সাঁইথিয়ায় বোমা হামলার পর এবার বিস্ফোরণে গরম পশ্চিম মেদিনীপুরের (Keshpur) কেশপুর। বিস্ফোরণে অগ্নিগর্ভ কেশপুর।

পশ্চিম মেদিনীপুর ও বীরভূম দুটি জেলা রাজনৈতিক কারণে দশকের পর দশক ধরে রক্তাক্ত হয়ে আসছে। বুধবার কেশপুরে বোমা বিস্ফোরণে জখম হলেন এক তৃণমূল সমর্থক।

  • পঞ্চায়েত ভোটের আগে কাঁপছে গ্রাম বাংলা
  • বীরভূম ও পশ্চিম মেদিনীপুরে শুরু হয়েছে বোমাবাজি
  • ভোটের আসলে গরম হচ্ছে মুর্শিদাবাদ ও কোচবিহার 

কেশপুরের চরকা গ্রামে প্রবল আতঙ্ক। সংঘর্ষে বোমা ছোড়া হয় বলে অভিযোগ। বিস্ফোরণে হাত উড়ে গেছে এক তৃণমূল কংগ্রেস সমর্থকের। গুরুতর জখম ওই তৃ়ণমূল সমর্থক রফিকুল আলমের চিকিৎসা চলছে মেদিনীপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে।

কেশপুরে সংঘর্ষের পিছনে সিপিআইএমের উস্কানি আছে বলে দাবি জেলা তৃণমূল কংগ্রেস নেতাদের। আরও অভিযোগ, বিজেপিও উস্কানি দিচ্ছে। তবে দুটি দলই অভিযোগ উড়িয়ে দাবি করে তৃণমূলের গোষ্ঠিদ্বন্দ্বের কারণেই গ্রাম বাংলা বারুদের স্তূপের উপর দাঁড়িয়ে আছে।

অন্যদিকে বীরভূমের সাঁইথিয়ার বহড়াপুর গ্রামে বোমাবাজির ঘটনায় তৃণমূলের গোষ্ঠিদ্বন্দ্ব প্রকাশ্যে। বহড়াপুরে প্রবল আতঙ্ক। সেখান বম্ব স্কোয়াড উদ্ধার করেছে কমপক্ষে ৪০টি বোমা। ১৪ জন তৃণমূল সমর্থক ধৃত। একাধিক জখম চিকিৎসাধীন। সাঁইথিয়ায় আতঙ্ক ছড়িয়েছে।

(সব খবর, সঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে পান। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram এবং Facebook পেজ)