Yelbong: এই গরমের ডেস্টিনেশন, ঘুরে আসুন ইয়েলবং থেকে

বেড়াতে যেতে কে না ভালবাসেন! রোজকার একঘেয়ে কাজ করতে গিয়ে স্বাভাবিকভাবেই ক্লান্তি আসে জীবনে। কাজেই হাওয়া বদল জরুরি। ছোট্ট ছুটিতে প্রকৃতির সান্নিধ্য পেলে মন হয়ে…

Yelbong

বেড়াতে যেতে কে না ভালবাসেন! রোজকার একঘেয়ে কাজ করতে গিয়ে স্বাভাবিকভাবেই ক্লান্তি আসে জীবনে। কাজেই হাওয়া বদল জরুরি। ছোট্ট ছুটিতে প্রকৃতির সান্নিধ্য পেলে মন হয়ে ওঠে চনমনে। কেউ যেমন অরণ্যের গভীরে আশ্রয় নেন, কেউ বেড়াতে যান পাহাড়ের কোলে। আবার সমুদ্রও ভালোবাসেন অনেকে। তবে আজ আপনাকে জানাব এক নাম না ডেস্টিনেশনের গল্প – ইয়েলবং (Yelbong)।

প্রকৃতি দেবতা যেন উত্তরবঙ্গকে দুহাত ভোরে সাজিয়েছেন। ইয়েলবং এমন এক গন্তব্যক্ষেত্র যেখানে গেল ভিজে উঠবে মন। রয়েছে নদী গিরিখাত। পাহাড়ের মাঝখান দিয়ে প্রায় ২ কিলোমিটার হেড়ে যাওয়ার রাস্তা আপনার মন ভরিয়ে দেবে। পর্যটন মানচিত্রে এখন অনেকটাই সুপরিচিত ইয়েলবং। প্রাকৃতিক শোভার জন্য এখানে ছুটে যান পর্যতক। সম্প্রতি ইয়েলবংয়ে বেশ কিছু হোম স্টে গড়ে উঠেছে। চাহিদা মতো থাকার জায়গা মিলে যাবে।

https://video.incrementxserv.com/vast?vzId=IXV533296VEH1EC0&cb=100&pageurl=https://kolkata24x7.in&width=300&height=400

শিয়ালদহ থেকে রায়ের কাঞ্চনকন্যা এক্সপ্রেসে উঠে পরদিন মেনে পড়ুন নিউ মাল জংশনে। সেখাআন থেকে ভাড়ার গাড়িয়ে ইয়েবলং যাওয়া যায়। নিউ জলপাইগুড়ি স্টেশনেও নেমেও ভাড়ার গাড়িতে যেতে পারেন। গাড়ি ভাড়া পড়তে পারে ১৫০০ টাকা। তবে বাসে যাওয়ার ব্যবস্থা নেই।

কলকাতায় হাঁসফাঁস গরম পড়তে শুরু করেছে। তবে এই বসন্তে উত্তরবঙ্গের আবহাওয়া একেবারে শীতল ও ফুরফুরে। এই সময় ইয়েবলং-এ গেলে মন হয়ে উঠবে চনমনে। গিরিখাতে হাটের রোমাঞ্চ আজীবন ভুলতে পারবেন না। হাতালে আর দেরি কেন আজই ঘুরে আসুন ইয়েবলং থেকে।