Tet Scam: গ্রেফতারির আশঙ্কা? সুপ্রিম কোর্টে গেলেন TMC বিধায়ক মানিক

23
Manik Bhattacharya

এবার সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হলেন অপসারিত মধ্যশিক্ষা পর্ষদের সভাপতি মানিক ভট্টাচার্য। প্রাথমিক মামলায় সুপ্রিম দ্বারে গিয়েছেন মানিক। শুক্রবার সুপ্রিম কোর্টে দায়ের করলেন স্পেশাল লিভ পিটিশন।

উল্লেখ্য, গত ২ সেপ্টেম্বর ডিভিশন বেঞ্চের দেওয়া নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টের দরজায় কড়া নেড়েছেন অপসারিত সভাপতি। বিচারপতি সুব্রত তালুকদার ও লপিতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ করেছেন মানিক।

তদন্তকারী সংস্থা ইডি এবং সিবিআই, উভয়ই এর আগেও একাধিকবার মানিক ভট্টাচার্যকে তলব ও জিজ্ঞাসাবাদ করেছে। এমনকি বাংলার প্রাক্তন মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়কেও এই কেলেঙ্কারিতে ভট্টাচার্যের ভূমিকা সম্পর্কে প্রশ্ন করা হয়েছিল, তবে পার্থ সর্বদা তার নীরবতা বজায় রেখেছেন বলে খবর। কিন্তু ইডি যখন পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের মোবাইল ফোনটি বাজেয়াপ্ত করে এবং তার হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট স্ক্যান করে, তখন তারা মানিক ভট্টাচার্যের বিরুদ্ধে প্রমাণ পেতে শুরু করে।

হোয়াটসঅ্যাপের কথোপকথনে দেখা গিয়েছে, মানিক ভট্টাচার্য যে টাকা নিচ্ছেন, সেই বিষয়ে পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে এক ব্যক্তি সতর্ক করেছিলেন বলে ইডি চার্জশিটে জানিয়েছে।