Tet Scam: মৃত ব্যক্তির নামে অ্যাকাউন্ট, তৃণমূল বিধায়কের কোটি কোটি ঘুষের টাকা

মৃত ব্যক্তির সঙ্গে জয়েন্ট অ্যাকাউন্ট ঘিরে জমজমাট রহস্য

48

টেট কেলেঙ্কারিতে (Tet Scam) জেল হেফাজত প্রাক্তন পর্ষদ সভাপতি (Manik Bhattacharya) মানিক ভট্টাচার্যের। ইডির (ED) দাবি মানিক ভট্টাচার্যের ১০ কোটি টাকার সম্পত্তির হদিশ মিলেছে।

এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটোর আরও দাবি একটি ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে আছে কমপক্ষে তিন কোটি টাকা। টাকা ঘুষের টাকা বলেই মনে করছেন তদন্তকারীরা।

১৪ দিনের ইডি হেফাজত শেষে মঙ্গলবার মানিক ভট্টাচার্যের তরফে জামিনের আবেদন জানানো হয়। সেই আবেদন বাতিল করে আদালত।

আদালতে বিস্ফোরক দাবি ইডির। জানানো হয় মানিক ভট্টাচার্যের একাধিক ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের খোঁজ মিলেছে। মানিক ভট্টাচার্যের স্ত্রীর নামে একটি জয়েন্ট অ্যাকাউন্টে ৩ কোটি টাকা রয়েছে বলে দাবি ইডির। ওই জয়েন্ট অ্যাকাউন্টটির অপর হোল্ডার মৃত্যুঞ্জয় চক্রবর্তী। তিনি ২০১৬ সালেই মারা গেছেন।

ইডি তরফে মঙ্গলবার ব্যাঙ্কশাল আদালতে দাবি করা হয়, মৃত মৃত্যুঞ্জয় চক্রবর্তী নামে এক মৃত ব্যক্তির নামের সঙ্গে রয়েছে মানিকের স্ত্রীর একটি ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট। সেখানে ৩ কোটি টাকার হদিশ মিলেছে৷ ২০১৬ সালেই মারা যান ওই ব্যক্তি।এখনও অ্যাকাউন্ট থেকে তাঁর নাম সরানো হয়নি।

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের ক্ষেত্রে পাহাড় প্রমাণ দুর্নীতি হয়েছে৷ একথা আগেই দাবি করেছে আদালত। আদালতের নির্দেশে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের অপসারিত সভাপতি মানিক ভট্টাচার্যের পরিবারের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট ছিল তদন্তকারী সংস্থার নজরে৷ সেইমতো ইডি তদন্তে নামতেই উঠে আসছে বিস্ফোরক তথ্য৷  মিলছে কোটি কোটি টাকার হদিশ৷

ইডির তরফে দাবি করা হচ্ছিল, মানিকের পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে মানিকের পরিবারের বাইরের লোকজনের যৌথ অ্যাকাউন্ট রয়েছে।  সেরকমই এক জয়েন্ট অ্যাকাউন্ট ঘিরে রহস্য জমজমাট।

(সব খবর, সঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে পান। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram এবং Facebook পেজ)