তৃণমূল আমলে ‘বেআইনি’ শিক্ষকদের ইস্তফার নির্দেশ, অমান্যে মর্মান্তিক পরিণতি

56

স্কুল সার্ভিস কমিশনের নিয়োগ দুর্নীতি (SSC Scam) মামলায় বিচারপতি অভিজিৎ গাঙ্গুলীর নির্দেশ, বেআইনি নিয়োগ পাওয়া শিক্ষক ও শিক্ষা দফতরের কর্মীদের ইস্তফা দিতে হবে। এই নির্দেশের পরই রাজ্য জুড়ে শোরগোল। হাজার হাজার ‘বেআইনি শিক্ষক’ সংখ্যা বলে দিচ্ছে পরিস্থিতি কতটা বিপজ্জনক (TMC)TMC তৃণমূল কংগ্রেস সরকারের কাছে। এই সরকারের আমলেই বিপুল বেআইনি নিয়োগ হয়েছে তা (CBI) সিবিআই তদন্তে প্রমাণিত।

নিয়োগ দুর্নীতির । তদন্তে নেমে চূড়ান্ত বেনিয়মের কথা উঠে এসেছিল৷ কোথাও নম্বর বাড়িয়ে আবার কোথাও সাদা খাতা জমা দিয়েও চাকরির কথা উঠে এসেছিল৷ ওএমআর শিটের জালিয়াতি ধরতেই পরিসংখ্যান চেয়েছিলেন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়। সিবিআইয়ের তরফে যে পরিসংখ্যানের পরই কড়া নির্দেশ দিলেন বিচারপতি।

বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় বলেন, বেআইনি ভাবে যাঁরা চাকরি পেয়েছেন, তাঁদের আগামী ৭ নভেম্বরের মধ্যে ইস্তফা দিতে হবে তাঁদের। তা না হলে আগামী দিনে কঠোর ব্যবস্থা নেবে আদালত। এমনকি ভবিষ্যতে তারা কোথাও না চাকরি করতে পারেন, সেই ব্যবস্থাও নেবে আদালত।

সিবিআই সূত্রে খবর, নিয়ম ভেঙে চাকরি দেওয়া হয়েছে মোট ৮,১৬৩ জনকে। নবম-দশমে ৯৫২ জন, একদশ-দ্বাদশে ৯০৭ জন, গ্রুপ-সি ৩৪৮১ জন এবং গ্রুপ-ডি পর্যায়ে ২৮২৩ জন ওএমআর শিটে কারচুপির কারণে চাকরি পেয়েছেন৷ শিক্ষক ও অশিক্ষক দুই পদেই প্রচুর সাদা খাতা জমা পড়েছে।

সাদা খাতা জমা যারা দিয়েছিলেন, তাদের মধ্যে কারা সুপারিশ পত্র ও নিয়োগপত্র পেয়েছিলেন। কত টাকার বিনিময়ে নিয়োগ হয়েছিল আগামী ৩ অক্টোবরের মধ্যে জানাবে স্কুল সার্ভিস কমিশন ও মধ্যশিক্ষা পর্ষদ৷

(সব খবর, সঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে পান। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram এবং Facebook পেজ)