Jalpaiguri: জলপাইগুড়ির পাশে রামকৃষ্ণ মিশন

  রবিবার মিনি টর্নেডোর আক্রমনে বিধ্বস্ত জলপাইগুড়ির ময়নাগুড়ি। গতকাল দুপুর পর্যন্ত যা খবর, কোনো সরকারি ত্রাণ বা সাহায্য পৌঁছায়নি। কিন্তু বিপর্যস্ত মানুষেরা পাশে পেয়েছেন রামকৃষ্ণ…

jalpaiguri

 

রবিবার মিনি টর্নেডোর আক্রমনে বিধ্বস্ত জলপাইগুড়ির ময়নাগুড়ি। গতকাল দুপুর পর্যন্ত যা খবর, কোনো সরকারি ত্রাণ বা সাহায্য পৌঁছায়নি। কিন্তু বিপর্যস্ত মানুষেরা পাশে পেয়েছেন রামকৃষ্ণ মিশনকে। ঝড়ের ফলে ক্ষতি হয়েছে বহু পরিবারের। ধ্বসে গিয়েছে বাড়ি। উড়ে গিয়েছে ঘরের চাল। গাছ চাপা পড়ে তছনছ হয়ে গিয়েছে এলাকা। বিঘের পর বিঘে জমিতে ফসলের ক্ষতি হয়েছে। দিশেহারা মানুষ। এই পরিস্থিতিতে এবার অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়াল জলপাইগুড়ি রামকৃষ্ণ মিশন।

এই অবস্থাতেও দুই শাসকদল রাজনীতি করে চলেছে। কিন্তু রামকৃষ্ণ মিশন ভোট চায় না শুধু সেবা করতে চায়। মঙ্গলবার ঝড়ে বিধ্বস্ত বিভিন্ন এলাকা পরিদর্শণ করেন রামকৃষ্ণ মিশনের সদস্যরা। ক্ষতিগ্রস্তদের হাতে তুলে দেওয়া হয় ত্রাণ সামগ্রী। শুধু তাই নয়, যাঁরা ঘটনার দিন জখম হয়েছিলেন তাঁদের ভর্তি করা হয়েছে হাসপাতালে। অসহায়দের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে খাদ্য। শুধু তাই নয়, গতকাল এলাকায় খোলা হয় ত্রাণ শিবির। প্রথমে দুর্গতদের হাতে তুলে দেওয়া হয় একটি করে খাদ্য সামগ্রীর কিট। পাশাপাশি দেওয়া হয় পলিথিন ও মশারি। রামকৃষ্ণ মিশন আশ্রমের অধ্যক্ষ স্বামী শিবপ্রেমানন্দজি মহারাজ জানান, “গত ৩১ তারিখ যে ঝড় এসেছিল তাতে জলপাইগুড়ি সদর ব্লক ও ময়নাগুড়ি ব্লকের বহু এলাকা ভীষণভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। আজ আমরা ঝড় বিধ্বস্ত এলাকায় এসে ১৫০ টি পরিবারের হাতে ত্রাণ সামগ্রী তুলে দিলাম।” তিনি আরো জানান বুধবার তারা আবার আসবেন। ও অসহায় মানুষের হাতে তুলে দেবেন আরো ত্রাণ সামগ্রী।