Friday, February 3, 2023

বীর সাভারকারকে সামরিক কৌশলবিদ বলে নতুন বিতর্ক তৈরি করলেন রাজনাথ

- Advertisement -

নিউজ ডেস্ক: বীর সাভারকারকে সামরিক কৌশলবিদ হিসেবে উল্লেখ করে নতুন বিতর্ক তৈরি করলেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং। গোটা দেশের কাছেই সাভারকর এক নগণ্য চরিত্র। কিন্তু বিজেপি ও সংঘ পরিবারের কাছে সাভারকর জাতীয় আইকন।

সাভারকরের উপর একটি বই প্রকাশ অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে রাজনাথ বলেন। বিংশ শতকের প্রথম সামরিক কৌশলবিদ ছিলেন সাভারকার। মহাত্মা গান্ধীর অনুরোধেই তিনি ব্রিটিশদের কাছে ক্ষমার আবেদন করেছিলেন। রাজনাথ স্পষ্ট বলেন, মার্কসবাদী-লেনিনবাদীরাই সাভারকর সম্পর্কে ভুল বার্তা পাঠিয়েছিলেন। ইচ্ছাকৃতভাবেই তাঁকে ফ্যাসিবাদী বলে অভিযুক্ত করা হয়েছিল।

সাভারকার কিন্তু আদৌ ফ্যাসিবাদী ছিলেন না। বরং তাঁকে জাতীয় আইকন বলা যেতে পারে। সাভারকার দেশের জন্য শক্তিশালী প্রতিরক্ষা ব্যবস্থার কথা বলেছিলেন। দেশের উন্নয়ন সম্পর্কে কূটনৈতিক মতামত দিয়েছিলেন। রাজনাথের মত প্রবীণ রাজনীতিবিদের মুখে সাভারকার সম্পর্কে এই মন্তব্য শুনে অনেকেই চমকে উঠেছেন।

- Advertisement -

বিজেপি ও সংঘের কাছে এমনিতেই জাতীয়তাবাদী হিসেবেই পরিচিত ছিলেন সাভারকর। কিন্তু তিনি যে সামরিক কৌশলবিদ ছিলেন সেকথা এই প্রথম জানালেন রাজনাথ সিং। ওই অনুষ্ঠানে রাজনাথ বলেন, ভারতীয় ইতিহাসের অন্যতম নায়ক ছিলেন সাভারকর। তিনি ভবিষ্যতে ওই আসনেই থাকবেন। কোনও একজন মানুষকে নিয়ে ভিন্নমত থাকতেই পারে। ভিন্নমত থাকা মানে এই নয়, কাউকে ছোট করা। কারও সম্পর্কে মিথ্যা প্রচার করা, বা কাউকে নিয়ে নিকৃষ্ট মন্তব্য করা।

রাজনাথ বলেন, কিন্তু সাভারকার সম্পর্কে কিছু মানুষ কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য করে থাকেন। তাঁর সম্পর্কে বিকৃত তথ্য প্রচার করে থাকেন। এটা কখনওই ঠিক নয়। সাভারকার ছিলেন একজন স্বাধীনতা সংগ্রামী এবং কট্টর জাতীয়তাবাদী। এহেন একজন মানুষ সম্পর্কে কখনওই ঘৃণা প্রকাশ ঠিক নয়। বরং মানুষের উচিত যেটুকু সম্মান তাঁর প্রাপ্য সেটা তাঁকে দেওয়া। দেশের প্রতি সাভারকরের যে অবদান রয়েছে সেটা স্বীকার করে নেওয়া।