Saturday, February 4, 2023

Cyclone Gulab Live Updates: গভীর রাতে হানা দিয়ে নিম্নচাপে পরিণত গুলাব

- Advertisement -

বিশেষ প্রতিবেদন: রবিবার দুপুরে যে আশঙ্কার মেঘ গুলাব (Cyclone Gulab) নিয়ে তৈরি হয়েছিল তা কাটল। রবিবার গভীর রাতে ঘূর্ণিঝড় গুলাব শক্তি কমিয়ে গভীর নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে। এমনটাই জানাল আবহাওয়া দফতর।

- Advertisement -

রবিবার বেশি রাতে অন্ধপ্রদেশের সান্থাগুড়ায় আছড়ে পড়ে ঘূর্ণিঝড় গুলাব। ঝড়ের বলি শ্রীকাকুলামের মৃত ২ মৎসজীবী। বাংলার উপকূলে দিল ঝড়ো হাওয়া। এতটুকুই। অথচ রবিবার দুপুরে শহর ও শহরতলির আকাশ কালো হয়ে আসে মেঘে। শুরু হয় বৃষ্টি। ঝেঁপে টানা ঘণ্টা দুয়েক বৃষ্টি হয়। বিকেল থেকে আকাশ পরিস্কার হয়। তারপর থেকে তেমন দুর্যোগের বৃষ্টি দেখা যায়নি। অবশ্য এমনটাই জানিয়েছিল আলিপুর আবহাওয়া দফতর। সেটাই হল, ভোগাবে ঘূর্ণাবর্তের বৃষ্টি।

সকালের আপডেট বলছে, গত কয়েক ঘণ্টায় গুলাব আরও পশ্চিম দিকে সরে গিয়েছে। আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাসে জানিয়েছে, ঝড় বা ওই সিস্টেমের প্রভাবে ঝড় বৃষ্টি চলবে অন্ধ্র ও ওডিশায়। তাই এই দুই রাজ্যে উপকূল এলাকায় রয়েছে কড়া সুরক্ষা ব্যবস্থা।

- Advertisement -

নয়াগড়, কালাহান্ডির মত জেলাগুলিতে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টি হতে পারে। হলুদ সর্তকতা জারি রয়েছে ভদ্রক, কেন্দ্রপাড়া, বালাসোর, কটক, সোনপুর, নোয়াপাড়া এলাকায়। এই অঞ্চলগুলিতে ভারী বৃষ্টি হবে।

এ রাজ্যের উপর এর প্রভাব নেই। আলিপুর আবহাওয়া দফতরের অধিকর্তা গণেশ কুমার দাস জানিয়েছেন, “পূর্ব মধ্য বঙ্গোপসাগরে একটু ঘূর্ণাবর্ত তৈরি হবে ২৭ সেপ্টেম্বর। এর জেরে উত্তর-পূর্ব বঙ্গোপসাগরে একটি নিম্নচাপ তৈরি হবে। সেটি ধীরে ধীরে উত্তর পশ্চিম দিকে এগিয়ে গিয়ে ২৯ তারিখ এসে পৌঁছাবে বাংলার উপকূলে। এর জেরে ঝড়ো হাওয়া এবং প্রচুর বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে দক্ষিণবঙ্গে।”

২৮ ও ২৯ তারিখ কমলা সতর্কতা জারি করা হয়েছে। ২৮ সেপ্টেম্বর কলকাতায় সর্বোচ্চ ৫০ কিলোমিটার গতিতে ঝড়ো হাওয়া বইতে পারে। ভারী বৃষ্টি হতে পারে কলকাতা, পূর্ব মেদিনীপুর, পশ্চিম মেদিনীপুর, উত্তর ২৪ পরগণা, দক্ষিণ ২৪ পরগণা, হাওড়া, পূর্ব বর্ধমান ও পশ্চিম বর্ধমানে। ২৯ সেপ্টেম্বরেও একই রকম।গতিতে শহরে বইবে ঝড়ো হাওয়া। ভারী বৃষ্টি হতে পারে কলকাতা, পূর্ব মেদিনীপুর, পশ্চিম মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম, বাঁকুড়া, পুরুলিয়া, উত্তর ২৪ পরগণা, দক্ষিণ ২৪ পরগণা, হাওড়া, পূর্ব বর্ধমান ও পশ্চিম বর্ধমানে। বৃষ্টি হতে পারে ৭০ থেকে ১১০ মিলিমিটার। এই দুই দিনেই পূর্ব মেদিনীপুর,উত্তর ২৪ পরগণা, দক্ষিণ ২৪ পরগণায় সর্বোচ্চ ৬৫ কিলোমিটার বেগে ঝড় বইতে পারে।