BJP-TMC: বিজেপি কর্মীর দোকানে আগুন লাগিয়ে দেওয়ার ঘটনায় চাঞ্চল্য, কাঠগড়ায় শাসক দল

শনিবার গভীর রাতে এক বিজেপি কর্মীর দোকানে আগুন লাগিয়ে দেওয়ার ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে বর্ধমানের পাণ্ডবেশ্বরে। পুলিশি অভিযোগের ভিত্তিতে জানা গিয়েছে উত্তর পশ্চিম বর্ধমানের পাণ্ডবেশ্বরে এই…

woman set on fire, representational picture

শনিবার গভীর রাতে এক বিজেপি কর্মীর দোকানে আগুন লাগিয়ে দেওয়ার ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে বর্ধমানের পাণ্ডবেশ্বরে। পুলিশি অভিযোগের ভিত্তিতে জানা গিয়েছে উত্তর পশ্চিম বর্ধমানের পাণ্ডবেশ্বরে এই ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার গভীর রাতে।

অভিযোগের ভিত্তিতে জানা গিয়েছে,পাণ্ডবেশ্বরের জামাই পাড়ার এবিপিটে গুমটি দোকান রয়েছে রিনা ঠাকুরের। তিনি বিজেপির মণ্ডল ১ মহিলা মোর্চার সাধারণ সম্পাদক। একটি সূত্র মারফৎ জানা গিয়েছে, তিনি মাস ছয়েক আগে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেন। অভিযোগ, তারপর থেকেই তাঁর উপরে বিভিন্ন ভাবে হুমকি দিতে থাকে তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা। তাঁকে দলে ফিরে আসার জন্য চাপ আসতে থাকে বলে জানা গিয়েছে। শুধু তাই নয় তাঁকে মারধর করা হয়েছিল বলেও অভিযোগ। তিনি থানাতে লিখিত অভিযোগ জানালেও প্রশাসন কিছু ব্যবস্থা নেয়নি বলে জানা গিয়েছে।

তিনি আরও জানান যে, এক প্রতিবেশী তাঁকে এসে বলেন যে তাঁর গুমটি দোকানে আগুন লেগে গিয়েছে। তখন রাত ২ টো হবে। জল দিয়ে আগুন নেভানোর চেষ্টা করলেও তা বিফলে যায়। দোকানে কিছু অবশিষ্ট নেই বলে জানা গিয়েছে।

রিনা ঠাকুর সংবাদমাধ্যকে জানান যে, সন্তোষ পাসওয়ান নামে এক তৃণমূল আশ্রিত মস্তান তাঁকে বিভিন্ন ভাবে হেনস্থা করার চেষ্টা করছে। তাঁকে প্রাণে মারারও চেষ্টা হয়েছে বলে অভিযোগ।

ভোটের দিনক্ষণ ঘোষণা হতেই এইরকম হিংসার খবর পাওয়া গিয়েছে রাজ্যের বিভিন্ন জায়গা থেকে। এখনও রাজ্যে ভোট শুরু হতে অনেক দেরী তাঁর আগে এমন ঘটনা প্রশাসনের চিন্তা বাড়িয়েছে।