Saturday, February 4, 2023

অসমেও বড়সড় হামলা চালাতে পারে আইএসআই, জারি হল সতর্কবার্তা

- Advertisement -

নিউজ ডেস্ক, নয়াদিল্লি: কাশ্মীরে জঙ্গিদের সক্রিয়তা গত এক মাসে অনেকটাই বেড়েছে। গোয়েন্দা বাহিনী তাদের রিপোর্টে জানাল, শুধু কাশ্মীর নয়, অসমেও বড়সড় হামলা চালানোর পরিকল্পনা করছে পাক গুপ্তচর সংস্থা আইএসআই। গোটা দেশেই বড় ধরনের নাশকতা চালানোর ষড়যন্ত্র করছে আইএসআই। গোয়েন্দা বাহিনীর এই সতর্কবার্তা পাওয়ার পরই অসমে জারি হয়েছে সতর্কতা।

- Advertisement -

সোমবার অসম পুলিশের প্রধান এই সতর্কবার্তা জারি করেন। রাজ্য পুলিশের ডিজি বলেছেন, সেনাবাহিনী এবং রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘের কর্মীরাই হামলাকারীদের মূল নিশানা। একসঙ্গে বহু মানুষের প্রাণ নিতে কোনও ধর্মীয় স্থান বা বড় জনসমাবেশে হামলা চালাতে পারে আইএসআই। অসমের সেনাঘাঁটিগুলিও রয়েছে আইএসআইয়ের নিশানায়। জনবহুল জায়গায় তারা আত্মঘাতী বিস্ফোরণ ঘটানোর পরিকল্পনা করছে। শুধু গোয়েন্দাদের সতর্কবার্তাই নয়, এ বিষয়ে আল-কায়দার একটি ভিডিয়ো বার্তার কথাও উল্লেখ করেছেন ডিজি।

আল-কায়দার সেই ভিডিও বার্তায় কাশ্মীরের মত অসমেও জেহাদের ডাক দেওয়া হয়েছে। ঘটনার জেরে যে কোনও ধরনের হামলা রুখতে সব ধরনের ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে রাজ্যের প্রতিটি থানাকে। প্রতিটি জেলার পুলিশ সুপারকেও সতর্ক করে দিয়েছেন ডিজি।

- Advertisement -

গোয়েন্দা বাহিনী জানিয়েছে, সম্প্রতি পাক অধিকৃত কাশ্মীরের মুজাফফরাবাদে লস্কর-ই-তৈবার সদস্যরা একটি বৈঠকে বসেছিল। ২১ সেপ্টেম্বর জঙ্গি সংগঠনের ওই বৈঠকে হাজির ছিল পাক গুপ্তচর সংস্থা আইএসআইয়ের একাধিক পদস্থকর্তা। ওই গুরুত্বপূর্ণ বৈঠকেই ভারতে কিভাবে নাশকতা চালানো যেতে পারে তার নীল নকশা তৈরি হয়। ওই বৈঠকেই কাশ্মীর-সহ সীমান্তবর্তী অসম, অরুণাচল প্রদেশে বড় ধরনের সন্ত্রাসবাদী হামলা চালানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে। জঙ্গিদের নিশানায় রয়েছে রাজধানী দিল্লি ও বাণিজ্যিক রাজধানী মুম্বই।

সাম্প্রতিককালে কাশ্মীরের নিরাপত্তাব্যবস্থা বহুগুণ বৃদ্ধি করা হয়েছে। সেখানে জঙ্গি সংগঠনগুলি তেমন একটা সুবিধা করতে পারছে না। সে কারণেই তারা কাশ্মীর ছাড়া অন্য রাজ্যগুলিকেও নিশানা করতে চাইছে।