WhatsApp: ভুল করে এই মেসেজ পাঠালেও হতে পারে জেল

28

হোয়াটসঅ্যাপ(WhatsApp) কীভাবে ব্যবহার করবেন: হোয়াটসঅ্যাপ এমন একটি অ্যাপ যা আপনি আজ প্রায় প্রতিটি স্মার্টফোনেই পাবেন। এই ইনস্ট্যান্ট মেসেজিং অ্যাপের ব্যবহার আর শুধু চ্যাটিং এবং কল করার জন্য নয়। এখানে দল গঠন করে অফিসের কাজও চলছে। এটি ব্যবসার একটি প্ল্যাটফর্মও হয়ে উঠেছে। সামগ্রিকভাবে বলা যায়, এটি আজ যোগাযোগের সবচেয়ে বড় মাধ্যম হয়ে উঠেছে। কিন্তু এই প্ল্যাটফর্মে, আমরা কখনও কখনও বার্তা, ছবি এবং ভিডিও শেয়ার করার সময় আইন লঙ্ঘন করি। যদিও এটি সম্পর্কে খুব কমই কেউ জানে, তবে এটি এমন একটি জিনিস যা আপনাকে জেলে পৌঁছাতে পারেন। আজ আমরা আপনাদের বলব কিভাবে হোয়াটসঅ্যাপে করা এই ভুলটি আপনাকে জেলে যেতে পারে।

  • 1. চাইল্ড পর্নোগ্রাফি

আপনি যদি ভুলবশত হোয়াটসঅ্যাপে চাইল্ড পর্নোগ্রাফি সম্পর্কিত কোনও ছবি বা ভিডিও শেয়ার করেন, তাহলে আপনাকে জেলে যেতে হতে পারে। এই আইন লঙ্ঘনের কারণে গত কয়েক বছরে দিল্লি পুলিশ বহু মানুষকে গ্রেফতার করেছে। অতএব, ভুল করেও, হোয়াটসঅ্যাপে চাইল্ড পর্নোগ্রাফি সম্পর্কিত সামগ্রী শেয়ার করবেন না।

  • 2. সামাজিক বৈষম্য প্রচার করে এমন ভিডিও

আপনি যদি এই প্ল্যাটফর্মে এমন কোনও ভিডিও, ছবি এবং বার্তা ভাইরাল করেন বা পাঠান, যা সমাজে বৈষম্য ছড়ায়, তবে আপনি আইন লঙ্ঘন করছেন। আপনার যদি হোয়াটসঅ্যাপে এমন কোনও ভিডিও থাকে তবে তা ফরওয়ার্ড করার পরিবর্তে অবিলম্বে মুছে ফেলুন। সমাজে বৈষম্য ছড়ায় এমন বার্তা, ভিডিও এবং ছবি শেয়ার করার জন্য আপনার জেল হতে পারে।

  • 3. জাল খবর শেয়ার করা

হোয়াটসঅ্যাপের নীতি জাল খবরের ক্ষেত্রেও কঠোর। এ ছাড়া ভুয়া খবর নিয়েও সরকার অ্যাকশন মোডে রয়েছে। ভুয়া খবরের কারণে যদি সমাজ ও দেশে সহিংসতা বা বৈষম্যের মতো বিষয় ছড়িয়ে পড়ে, তাহলে তা হবে আইনগত অপরাধ। এই পরিস্থিতিতে আপনি যদি হোয়াটসঅ্যাপে ভুয়ো খবর ছড়িয়ে দেন, অর্থাৎ প্রচার করেন, তাহলে আপনাকে জেলে যেতে হতে পারে। তাই হোয়াটসঅ্যাপে আসা প্রতিটি খবর অবিলম্বে শেয়ার না করা গুরুত্বপূর্ণ। আগে যাচাই করুন এটা ঠিক না ভুল।

(সব খবর, সঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে পান। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram এবং Facebook পেজ)