Pritam Kotal: ডার্বির আগে ইস্টবেঙ্গলকে সমীহ করছেন প্রীতম

54

শনিবার যুবভারতীতে এই বছরের আইএসএল এর প্রথম ডার্বি। মরসুমের বড় ম্যাচ ঘিরে চড়ছে উন্মাদনার পারদ।‌‌ তার আগে দুই দলই জোর কদমে অনুশীলন সারছে। এই ম্যাচের আগে নিজেদের এগিয়ে রাখতে পারছেন না সবুজ-মেরুনের প্রীতম কোটাল (Pritam Kotal)। ইস্টবেঙ্গলকেও এগিয়ে রাখছেন না তিনি।

তাঁর মতে, বড় ম্যাচ জেতার সম্ভাবনা ৫০-৫০। বড় ম্যাচের চার দিন আগে প্রীতম বলেছেন, ‘‘আমরা তৈরি। দলের সকলেই আত্মবিশ্বাসী। তবু ইস্টবেঙ্গলকে হালকা ভাবে নেওয়ার কোনও প্রশ্ন নেই। ওদের রক্ষণ এবং আক্রমণ বেশ ভাল। যথেষ্ট শক্তিশালী দল। তা ছাড়া বড় ম্যাচ সব সময় আলাদা। সব সময় ৫০-৫০। কে শক্তিশালী, কে দুর্বল— এ সবের কোনও গুরুত্ব নেই।’’

মোহনবাগানের আরেক ফুটবলার আশিক কুরুনিয়ানও সমীহ করছেন ইস্টবেঙ্গলকে। কুরুনিয়ান বলেছেন, ‘‘ইস্টবেঙ্গলের রক্ষণ খুব শক্তিশালী। ভাল দল। ওরাও শেষ ম্যাচে জিতেছে। সতর্ক থাকতেই হবে। সব ফুটবলারই চায় মোহনবাগান-ইস্টবেঙ্গল ম্যাচে গোল করতে। আমিও গোল করতে চাই। কিন্তু এটা কারও হাতে নেই। চেষ্টা তো অবশ্যই করব।’’ ইস্টবেঙ্গলকে হারিয়ে আইএসএলের পয়েন্ট টেবিলের আরও উপরে ওঠাই লক্ষ্য তাঁর।

অন্যদিকে জোরকদমে অনুশীলন সারছে লাল হলুদ বাহিনীও। আর অন্যদিকে এবার দক্ষিণ কলকাতায় কালীপুজোর থিমে ইস্টবেঙ্গল।বাঘাযতীন শ্রীকলোনি সবুজ সংঘের সেই পুজো মণ্ডপ এদিন পরিক্রমা করে দেখলেন ইমামি ইস্টবেঙ্গলের হেড কোচ স্টিফেন কনস্ট্যানটাইন ও ইস্টবেঙ্গল কর্তা দেবব্রত সরকার। প্রায় ৩০ মিনিট পুজো মন্ডপে সময় কাটান তাঁরা। কালী পুজোর মন্ডপে ইস্টবেঙ্গলের ছোঁয়া দেখে বেশ খুশি লাল হলুদ কোচ।

(সব খবর, সঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে পান। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram এবং Facebook পেজ)