Bratya Basu: অযোগ্যদের নিয়োগ ‘মন্ত্রিসভার সিদ্ধান্ত’ ব্রাত্য বচনে বিতর্কে মমতা সরকার

36

অযোগ্যদের নিয়োগের জন্য অতিরিক্ত শূন্যপদ তৈরির নির্দেশ দিয়েছিলেন শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু(Bratya Basu)। শুক্রবার কলকাতা হাইকোর্টে বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের এজলাসে একথাই বলেন শিক্ষসচিব মণীশ জৈন। তাঁর স্বীকারোক্তির পর বিচারপতির মন্তব্য,পুরো মন্ত্রিসভাকে এই মামলায় আমি পক্ষ করতে পারি। ডেকে পাঠাতে পারি রাজ্যের সব মন্ত্রীকে।

এদিকে শিক্ষামন্ত্রীর বিস্ফোরক দাবি। ব্রাত্য বসু বলেন, নিশ্চিতভাবেই মন্ত্রিসভায় সিদ্ধান্ত হয়েছিল। হাইকোর্টের মন্তব্যের প্রেক্ষিতে শিক্ষামন্ত্রীর এমন প্রতিক্রিয়ায় তীব্র বিতর্কে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

বেনামি আবেদন মামলায় কলকাতা হাইকোর্টের । বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের সব মন্ত্রীদের ডেকে পাঠাতে পারি মন্তব্যের প্রেক্ষিতে প্রতিক্রিয়া দেন শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু। তিনি বললেন, নিশ্চিতভাবেই মন্ত্রিসভায় সিদ্ধান্ত হয়েছিল। আইনি পরামর্শ নিতে বলেছিলাম।

 এদিন আদালতে বোমা ফাটান শিক্ষাসচিব মণীশ জৈন।বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের এজলাসে জৈন জানান, শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসুর নির্দেশেই অতিরিক্ত শূন্যপদ তৈরি হয় করা হয়।বিস্মিত বিচারপতি প্রশ্ন করেন আইনে সংস্থান নেই, তবু কী ভাবে অতিরিক্ত শূন্যপদ তৈরির সিদ্ধান্ত?

এই তীব্র বিতর্কে এবার ব্রাত্য বসুর প্রতিক্রিয়ায় আরো আলোড়ন। তিনি যেভাবে মন্ত্রিসভার ঘাড়ে দায় ঠেলেছেন তাতে মুখ্যমন্ত্রী মমতা নিজেও বিতর্কে পড়লেন।

(সব খবর, সঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে পান। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram এবং Facebook পেজ)