INC: কংগ্রেস সভাপতির পদ নিয়ে প্রবল দ্বন্দ্ব, এবার দ্বিগ্বিজয়ের পদত্যাগ হুমকি

পদ দাও পদ দাও বলে চিৎকার শুরু একের পর এক নেতার। রাহুল গান্ধী আছেন ভারত জোড়ো পদযাত্রায়।

28
inc-president-election-controversy

কুড়ি বছরের রীতি ভেঙে এবার কংগ্রেস (INC) সভাপতি পদে গান্ধী পরিবারের বাইরের কোনও সদস্য৷ কিন্তু কে বসবেন সভাপতি পদে? এই নিয়ে রাজনৈতিক মহলে তুমুল জল্পনা। কংগ্রেস (Congress) হাইকম্যান্ডের তরফে সবুজ সংকেত পাওয়া শশী থারুর রয়েছেন এই দৌড়ে৷ আবার রয়েছেন রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলোট৷ এরই মধ্যে জল্পনা বাড়িয়ে সভাপতির দৌড়ে নাম লেখালেন মধ্যপ্রদেশের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী দ্বিগ্বিজয় সিং।

বুধবার এক সংবাদমাধ্যমকে দ্বিগ্বিজয় সিং জানিয়েছেন,সভাপতি পদে অশোক গেহলোটকে বসতে হলে তাকে মুখ্যমন্ত্রী সহ তিন পদ থেকে ইস্তফা দিতে হবে৷ এত সহজে শচীন পাইলটকে জায়গা ছেড়ে দেবেন অশোক গেহলোট? তাই শশী থারুর বনাম অশোক গেহলোটের লড়াইয়ের মাঝে কেন তাকে বাদ দেওয়া হচ্ছে? প্রশ্ন তুলেছেন বর্ষীয়ান রাজনীতিবীদ।

দ্বিগ্বিজয় বলেন, আগামী ৩০ তারিখ মনোনয়ন জমা দেওয়ার দিন৷ ওই দিনেই সমস্ত কিছু পরিষ্কার হয়ে যাবে। সকলের অধিকার রয়েছে নির্বাচনে লড়াই করার, কেউ যদি নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে না চায়, তাকে কেউ জোর করতে পারে না৷

উল্লেখ্য, সভাপতি পদে এবার বিরাট বদল আনতে চেয়েছে কংগ্রেস। উদয়পুরে অনুষ্ঠিত কংগ্রেসের কর্মসূচিতেই স্থির করা হয়েছে এক ব্যক্তি, এক পদের প্রসঙ্গ৷ এবার সভাপতি পদ থেকে অব্যহতি দিতে চান সোনিয়া। সভাপতি পদ থেকে দুরত্ব রেখেছেন রাহুল৷ এপ্রসঙ্গে বর্ষীয়ান নেতা নরশিমা রাও এবং সীতারাম কেশরীর কথাও তুলে ধরেন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী।

inc-president-election-controversy

একইসঙ্গে দ্বিগ্বিজয় সিং জানিয়ে দিলেন, আগামী দিনে রাহুল গান্ধীর ভূমিকা কী হবে? সেটা ঠিক করবে নয়া কংগ্রেস সভাপতি। তবে আগামী দিনে কংগ্রেসের লড়াইয়ের জন্য রাহুল গান্ধী অন্যতম মুখ৷ তা স্পষ্ট করেছেন তিনি।