অঙ্গদান সম্পর্কে কয়েকটি জরুরি তথ্য

157

নিউজ ডেস্ক: ‘অঙ্গদান’ কথাটির সঙ্গে বর্তমানে আমরা কমবেশি সকলেই পরিচিত। অঙ্গদান বিষয়টি আসলে মানবিকতার একটি পরিচয়। কিন্তু বিস্তারিত জ্ঞান বা সচেতনতা না থাকায় অনেকেই নিজে অঙ্গদানের মতো মহৎ কাজে সামিল হতে পারে না। স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের মতে, ০.০৮ শতাংশ ভারতীয় অঙ্গদান করেন। তুলনায় স্পেন এবং বেলজিয়ামের ৭০ থেকে ৮০ শতাংশ মানুষ এই মহত্‌ কাজটি করেন।

আরও পড়ুন কিডনি দান করে ভাইকে রাখী পূর্ণিমায় অমূল্য উপহার বোনের

কোনও ব্যক্তির মৃত্যুর পর তাঁর শরীরের নানা সুস্থ অঙ্গ মরণাপন্ন ব্যক্তির সুস্থ হয়ে ওঠায় ব্যবহার করা যায়। জানুন কীভাবে করে যাবেন মরনোত্তর অঙ্গদান!

Organ transplants: why so many people are put off donating

অঙ্গদান কী?

অঙ্গদান হল, নিজের শরীরের অংশ অন্য কোনও ব্যক্তিকে দান করে দেওয়া।

কোন কোন অঙ্গ দান করা যায়?

শরীরের গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ যেমন হৃদপিণ্ড, যকৃত, ফুসফুস, অগ্ন্যাশয়, রক্ত, রক্তনালী প্রভৃতি দান করা যায়।

আরও পড়ুন সারাদিনে প্রচুর জল খাচ্ছেন! অজান্তেই শরীরে বিপদ ডেকে আনছেন না তো!

অঙ্গদানের বয়স :

অঙ্গদানের কোনও নির্দিষ্ট বয়স নেই। সদ্যোজাত থেকে শুরু করে বয়স্ক ব্যক্তিরা অঙ্গদান করতে পারেন। তবে অঙ্গদান করার আগে অবশ্যই চিকিত্‌সকের পরামর্শ নেওয়া উচিত্‌। একমাত্র তিনিই বলতে পারবেন আপনার দান করা অঙ্গটি সুস্থ কিনা।

আরও পড়ুন এবারে শীতে বড় পর্দায় আসতে চলেছে দেব-রুক্মিণীর ‘কিশমিশ’, প্রকাশ্যে ছবির অ্যানিমেটেড টিজার

অঙ্গদানের রেজিস্ট্রেশনের পদ্ধতি

প্রত্যেক রাজ্যের নিজস্ব অঙ্গদানের জন্য সাইট রয়েছে। পশ্চিমবঙ্গে https://organdonationbengal.in/ সাইটের মাধ্যমে আপনি অঙ্গদান করতে পারবেন। ইন্টারনেট ঘাঁটলে সেই সম্পর্কে সমস্ত তথ্য পাওয়া যায়। যাঁরাই অঙ্গদান করতে চান, নিজেদের নাম সেখানে রেজিস্ট্রি করতে হয়। প্রথমে নিজের মোবাইল নম্বর অথবা ইমেল আইডি নিয়ে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে।

কিন্তু মনে রাখতে হবে, মরণোত্তর অঙ্গদানে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই বাধা হয়ে দাঁড়ায় পরিবারের লোক। ফলে শুধু নিজে মনস্থির করাই নয়, পর্যাপ্ত তথ্য জানিয়ে সচেতন করতে হবে পরিবারের লোকদেরও।