Mobile Addiction: রাতে ঘুমের আগে ফোন ব্যবহার করেন?ডেকে আনছেন বিপদ

23

রাতে ফোন ঘাঁটার অভ্যেস(Mobile Addiction) আমাদের প্রত্যেকেরই রয়েছে ধীরে ধীরে এটি একটি ওষুধের মত হয়ে দাঁড়িয়েছে। খাওয়া-দাওয়ার পর বিছানায় শুয়ে ঘন্টাখানেক ফোন স্ক্রল না করলে আমাদের পেটের ভাত যেন হজম হয় না । ভালো করে বুঝুন বিপদ ডেকে আনছেন না তো ?

এই মুহুর্তে সেল ফোন এমন একটি অপরিহার্য জিনিস যা ছাড়া আমরা চলতে পারবো না তবে এখন সেল ফোনের সাথে সাথে সোশ্যাল মিডিয়া আমাদের কাছে খুব গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয় উঠেছে। দিনের বেশিরভাগ সময়টা আমরা ওখানেই কাটাই এরপর দিনের শেষে ঘুমোতে যাওয়ার আগে সোশ্যাল মিডিয়াস স্ক্রল করার অভ্যেস আমার আপনার সকলেরই রয়েছে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন বিপদ এখানেই। ফোন মস্তিষ্কে অনেকখানি প্রভাব ফেলে। দিনের শেষে বিশেষ করে ঘুমোতে যাওয়ার আগে সোশ্যাল মিডিয়া থাকা বিভিন্ন পোস্ট আমাদের ভাবিয়ে তোলে বিশেষ করে ঘুমোতে যাওয়ার আগেই উদ্বেগ জনক কিছু দেখে ঘুমোতে গেলে তা আমাদের মানসিকভাবে যথেষ্ট ক্ষতিগ্রস্ত করে। তার ফলে শান্তিতে ঘুম হয় না এছাড়াও সোশ্যাল মিডিয়ার বিভিন্ন পোস্ট আমাদের বিভিন্নভাবে বিভিন্ন রকম আবেগের জন্ম দেয় এ ধরনের আবেগ আমাদের মস্তিষ্ককে বিশ্রাম নিতে দেয় না ফলস্বরূপ যতই ঘুম হোক না কেন ক্লান্তি কাটতে চায় না ।

 সোশ্যাল মিডিয়া দেখতে শুরু করলে যে সময় আমরা ঘুমাবো বলে ঠিক করি সেই সময় পেরিয়ে যায় তারপরে ঘুমের সময় ছোট হয়ে যায় তাতে আমরা পর্যাপ্ত পরিমাণে বিশ্রাম নিতে পারি না। এছাড়া ঘুমের আগে চোখের খুব কাছে একভাবে ফোনের থেকে আসা রশ্মি চোখকে ক্ষতিগ্রস্ত করতে পারে। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই মানুষ বিছানায় শুয়ে পড়ে চশমা ছাড়াই এবং চশমা ছাড়া একভাবে সেলফোনের দিকে তাকিয়ে থাকলে তা চোখকে ক্ষতিগ্রস্ত করে। 

এছাড়াও একাধিক কুপ্রভাব রয়েছে ফোনের। রাতের বেলা ঘুমোতে যাবার আগে ফোন দেখা অত্যন্ত খারাপ। বিশেষজ্ঞরা বলছেন অত্যন্ত দরকার না পড়লে ঘুমোতে যাওয়ার আগে মোবাইল ফোন দেখার কোন দরকার নেই।

(সব খবর, সঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে পান। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram এবং Facebook পেজ)