আফগানিস্তানে পোস্টিং চাই, মহিলা ITBP কনস্টেবলের মামলায় হতবাক বিচারপতি

146

নিউজ ডেস্ক: গোটা আফগানিস্তান জুড়ে ক্রমশই বৃদ্ধি পাচ্ছে তালিবানদের আক্রমণ। ক্রমশ আতঙ্ক বাড়ছে আফগান নাগরিকদের মধ্যে। অন্যদিকে বিভিন্ন দেশের জওয়ানরা ঝাঁপিয়ে পড়েছে উদ্ধারকাজে। কালই এক মার্কিন মহিলা উদ্ধার করেছেন আফগান মহিলা রোবোটিক্স টিমকে।

আরও পড়ুন শিল্পেই বিপ্লব: তালিবানদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদে কাবুলের গ্রাফিতি শিল্পী শামসিয়া হাসানি

তালিবানদের কাবুল দখল নিয়ে বিশ্বজুড়ে আলোচনা হচ্ছে। সোশ্যাল মিডিয়ায় অনেক তারকাই এর প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন। বিশেষ করে আফগানিস্তানে মহিলাদের অবস্থা নিয়ে চিন্তা প্রকাশ করেছেন অনেকে। কাবুলের দৃশ্য দেখে চোখের জল ধরে রাখতে পারছেন না ভারতীয় সৈন্যরাও। কাবুলে আটক ভারতীয় সদস্যদের ইতিমধ্যেই উদ্ধার করে এনেছে ভারতীয় বায়ুসেনা। এবার আফগানিস্তানে বদলি চেয়ে দিল্লি হাইকোর্টে মামলা দায়ের করলেন ভারত-তিব্বত সীমান্ত পুলিশের দুই মহিলা কনস্টেবল।

আরও পড়ুন ফিরল ‘ভয়াবহ রবিবার’, আফগানিস্তানে জঙ্গি সরকারকে সমর্থনে বিশ্ব দোদুল্যমান

প্রথমদিনেই মামলা খারিজ করে দেন দিল্লি হাইকোর্টের বিচারপতি রাজীব সহায় এবং অমিত বনসল। যদিও যুদ্ধবিদ্ধস্ত কাবুলে যেতে চান, এই ঘটনাটিতেই অবাক হয়ে গিয়েছেন বিচারপতিরা। যদিও এই মামলার আবেদন এবং খারিজ দুটোই তালিবানদের কাবুল দখলের আগে হয়েছিল।

রিপোর্ট অনুযায়ী, এদিকে মামলা খারিজ করে দিল্লি হাইকোর্ট বলে, ‘সশস্ত্র বাহিনীর জওয়ান হিসেবে আইটিবিপির (Indo-Tibetan Border Police) জওয়ানদের যেকোনও জায়গায় মোতায়েন করা যায়। প্রয়োজন অনুযায়ী এই নিয়োগ করা হয়। কিন্তু নির্দিষ্ট ভাবে আফগানিস্তানে নিযোগ চাওয়ার কোনও এক্তিয়ার জওয়ানদের নেই। ফলে মামলাটি খারিজ করে দেওয়া হল। তবে পড়শি দেশের এই ভয়ঙ্কর পরিস্থিতিতে তাদের নিজে থেকে আফগানিস্তানে মোতায়েন চেয়ে আবেদন করায় আমরা হতবাক।’

ওই দুই আইটিবিপি কনস্টেবলদের দাবি, ২০২০ সালের আগস্টে তাঁদের কাবুলের দূতাবাসে নিয়োগ করা হয়েছিল দুই বছরের জন্য। ফলে কাবুলে দুই বছর থাকা তাঁদের অধিকারের মধ্যে পড়ে। তালিবানদের কাবুল দখলের পর থেকে আফগানিস্তান থেকে ৯৯ জন আইটিবিপি জওয়ানকে ভারতে ফিরিয়ে নিয়ে আসা হয়েছে।

(সব খবর, সঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে পান। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram এবং Facebook পেজ)