তৃণমূলের পোস্টার বিদেশি বোতলে পুরনো বাংলা মদ: মহম্মদ সেলিম

27

তৃণমূল কংগ্রেসের অভ্যন্তরে পোস্টার যুদ্ধ চলছে। দক্ষিণ কলকাতায় নতুন তৃণমূলের নাম করে পোস্টারে অভিষেকের ছবিতে গুরুত্ব। উত্তর কলকাতায় দেখা গেল পুরাতনের সঙ্গে নতুন মিশিয়ে তৃণমূল (TMC) পোস্টার। শাসক দলের এই পোস্টার বিতর্কে রবিবার সাংবাদিক বৈঠকে তৃণমূলকে কড়া ভাষায় আক্রমণ করলেন সিপিআইএম (CPIM)  রাজ্য সম্পাদক মহম্মদ সেলিম (Md Salim)। তিনি বলেন এ হল বিদেশি বোতলে পুরনো বাংলা মদ!

সেলিমের কটাক্ষ, শুনলাম ভাইপো দুবাই গিয়েছিল বিদেশী বোতল আনতে। বিদেশি বোতলে পুরনো বাংলা মদ। বেকার ছেলেমেয়েরা যারা কাজ চাইছে তাঁদের জন্য কিছু নয়। জিনিসের যে দাম বাড়ছে সেটা নিয়ে যুদ্ধ হচ্ছে না। যে দুর্নীতি হচ্ছে সেটা বন্ধ করার কথা বলা হচ্ছে? এটা একটা নতুন রঙের কোট লাগানো হচ্ছে। একটা কুৎসিত চেহারা হয়েছে, একটা বর্ষায়, রঙচঙ, মেকআপ, ধুয়ে মুছে ফর্সা হয়ে গেছে, এখন আবার রঙ লাগানো হচ্ছে। এর থেকে বেশি কিছু নয়।

তিনি বলে ওঠেন, পুরনো মানে কী? পুরাতন মানে কি দুর্নীতি? পোস্টার নিয়ে উত্তর কলকাতা এবং দক্ষিণ কলকাতায় তৃণমূলের যুদ্ধ। আর গ্রামে কী হচ্ছে? নতুন তৃণমূল এবং পুরাতন তৃণমূলের মধ্যে যুদ্ধ।

সেলিম বলেন, এখানে তো পোস্টার যুদ্ধ। গ্রামে তো বোমা যুদ্ধ। অস্ত্র যুদ্ধ হচ্ছে। মারা যাচ্ছে তো উলু খাগড়ারা। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কটাক্ষ করো তিনি বলেন, আগে তো উনি ভাগ করে দিয়েছিলেন ২৫-৭৫। সেখান থেকে ভাগ পেত অনুব্রতরা। এখন ঝগড়া হচ্ছে কী হবে? ২৫-৫০? নাকি ৩৫-৪০?

উল্লেখ্য, রবিবার সকালে সুকিয়া স্ট্রিটে তৃণমূলের একটি পোস্টারকে ঘিরে বিতর্ক শুরু। পোস্টারে স্পষ্ট ভাষায় লেখা “মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে, অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সেনাপতিত্বে, তৃণমূল কংগ্রেস ছিল আছে থাকবে।“ পোস্টারে লেখা “পুরাতনই ভিত্তি, নতুন ভবিষ্যত”।

এর আগে দক্ষিণ কলকাতার ভবানীপুরে পোস্টার পড়েছিল অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সমর্থনে। ব্যনার পড়েছিল ব্যানার পড়েছে হাজরা মোড়ে, কালীঘাট রোডে মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ির গলিতে ঢোকার মুখে। ব্যানারে লেখা, আগামী ছয় মাসের মধ্যে সামনে আসবে নতুন তৃণমূল, ঠিক যেমন সাধারণ মানুষ চায়। আবার কোথাও লেখা, মানুষ যেভাবে চায় সেভাবেই তৈরি হচ্ছে তৃণমূল।

(সব খবর, সঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে পান। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram এবং Facebook পেজ)