আতঙ্কিত বাংলার মা: ২০০০ ছাড়িয়ে গেল জ্বরাক্রান্ত শিশুর সংখ্যা

237
unknown fever

নিউজ ডেস্ক: দার্জিলিং থেকে ডায়মন্ডহারবার রাজ্যের সর্বত্র ‘অজানা জ্বর’ বা জলপাইগুড়ি জ্বর ছড়িয়েছে হু হু করে। যদিও সরকার ও স্বাস্থ্য দফতর এই জ্বরকে অজানা বলতে নারাজ। বলা হয়েছে, উদ্বেগের কারণ নেই। কিন্তু উদ্বেগ কমছে না বই বাড়ছে। জ্বর ছড়াচ্ছে হু হু করে, শিশু কোলে মায়েরা ভীত

শুক্রবার রাত পর্যন্ত রাজ্যে জ্বরাক্রান্ত ১১ শিশুর মৃত্যু হয়েছে। উত্তরবঙ্গের জলপাইগুড়ি থেকে এই জ্বর ছড়াতে শুরু করে। এখন উত্তর ছাড়িয়ে দক্ষিণবঙ্গের পুরুলিয়া, পশ্চিম বর্ধমান কলকাতা সংলগ্ন এলাকায় জ্বরের প্রকোপ বেড়েছে। পশ্চিম বর্ধমানের দুর্গাপুর, পুরুলিয়াতেও জ্বরাক্রান্ত শিশুদের নিয়ে ভীত মায়েদের ভিড় বাড়ছে।

পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে উত্তরবঙ্গে গিয়েছেন বিশেষ পরিদর্শকরা। যতই দিন যাচ্ছে ততই এবং তার সঙ্গে মৃত্যু হচ্ছে একের পর এক শিশুর। মালদহ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতাল, জলপাইগুড়ি জেলা হাসপাতাল, উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, শিলিগুড়ি মহকুমা হাসপাতালের বেডের অভাব। মালদহে জ্বরে আক্রান্ত এক শিশুর মৃত্যু হয়। তার বাড়ি ঝাড়খণ্ডে।

চিকিৎসকদের আশঙ্কা পশ্চিমবঙ্গ থেকে এই জ্বর প্রতিবেশি রাজ্যগুলিতে ছড়াবে। কারণ এই জ্বরের অন্যতম সংক্রমণ কেন্দ্র শিলিগুড়ি। এই শহরের সঙ্গে গোটা দেশের যোগাযোগ।