Assam: ভাষা শহিদ শিলচর স্টেশনের সরকারি পোস্টারে বাংলা নেই ! বিতর্ক বাড়ছে

218
bengalis of assam

নিউজ ডেস্ক: অসমের (Assam) সরকারি ভাষার একটি বাংলা। আর বাংলা ভাষার অধিকার অর্জনের জন্য রক্তাক্ত হওয়া শিলচর স্টেশনেই পড়েছে অহমিয়া ভাষায় সরকারি পোস্টার। যদিও এ রাজ্যে অপর সরকারি ভাষা বাংলা। ঘটনার জেরে শিলচর সরগরম। 

অহমিয়া ভাষায় লিখিত এই সরকারি প্রকল্পের পোস্টার লাগানো নিয়ে সোচ্চার বরাক ডেমোক্রেটিক যুব ফ্রন্ট এবং সারা বাঙালি ছাত্র যুব সংস্থার সদস্যরা। সরকারি পোস্টারটি কালো কালি দিয়ে মুছে দেন।

যুব ফ্রন্টের মুখ্য আহ্বায়ক কল্পার্ণব গুপ্ত বলেন, যে একাদশ শহিদের রক্তের বিনিময়ে ১৯৬১ সালে যে ত্রিভাষা সূত্র সরকারি ভাবে গৃহীত হয় যে তাতে স্পষ্টতই সরকারি কাজকর্মে ও প্রচার ইত্যদিতে অসমের বরাকে বাংলাভাষা ব্যাবহৃত হবে এমন সিদ্ধান্ত হয়েছিল। বর্তমান সরকারের সেটা অজানা থাকার কথা নয়। কিন্তু তারপরও সরকারি তরফে এখানে অসমিয়া ভাষায় পোস্টারের পিছনে কোনও উদ্দেশ্য রয়েছে।

অভিযোগ,বিজেপি অসমে ক্ষমতায় আসার পর থেকে ক্রমাগত বাঙালি বিদ্বেষ মনোভাব নিয়ে চলছে। নাম্নী অসম বা বরাক উপত্যকায় বিষয়টি নিয়ে রাজনৈতিক চাপান উতোর শুরু হয়েছে। কল্পার্ণব বলেন যে সরকার নির্বিশেষে দিশপুরের কর্তাদের তরফে এইভাবে জোর করে অসমিয়াকরণের চেষ্টা চলছেই।

তিনি বলেন অসমের বরাকের জনগণ বাধ্য হয়ে ভাষার প্রশ্নে স্পর্শকাতর হয়ে উঠেছেন। অসমের বরাকে এইভাবে পেছন থেকে অসমিয়া ভাষা চাপিয়ে দিতে গেলে তার ফল মোটেই ভালো হবেনা। এইসব‌ কিছুতেই মানা হবেনা এবং এসবের প্রতিরোধে সর্বাত্মক আন্দোলনে নামবে বিডিএফ যুবফ্রন্ট। এইসব বন্ধ না হলে আবার ৬১ এর আন্দোলনের পুনরাবৃত্তি হবে।