INC: রাজস্থানে সচিনের ব্যাটিং ভরসা কংগ্রেসের, আজ বৈঠক

35
INC congrerss Flag

কংগ্রেস (INC) সভাপতি পদে লড়াই করতে গেলে মুখ্যমন্ত্রী পদ থেকে ইস্তফা দিতে হবে৷ দলের তরফে স্পষ্ট বার্তা পান অশোক গেহলট। সেই বার্তা আসার পরেই রবিবার বিকেলে বৈঠকে বসে রাজস্থান (Rajashtan) প্রদেশ কংগ্রেস। জানা যাচ্ছে গেহলটকে সর্বভারতীয় কংগ্রেস (Congress) সভাপতির ভোটে জিতিয়ে রাজস্থানকে সচিনের হাতেই তুলে দিতে চান রাহুল গান্ধী। তৈরি (Sachin Pilot) সচিন পাইলট।

আগামী মাসেই সভাপতি পদে নির্বাচন হচ্ছে কংগ্রেসে। ২০ বছর পর গান্ধী পরিবারের বাইরে কোনও ব্যক্তিকে জায়গা দেওয়া হচ্ছে৷ শশী থারুরের পাশাপাশি ময়দানে নেমেছেন দলের অন্যান্য নেতারাও। সেই তালিকায় প্রথমেই রয়েছেন অশোক গেহলট৷ সূত্রের খবর, ২০২০ সালে রাজস্থানের রাজনৈতিক অস্থিরতার সময় উপমুখ্যমন্ত্রীর পদ খুইয়েছিলেন সচিন৷ এখন তিনি মুখ্যমন্ত্রী পদের জন্য অন্যতম দাবীদার৷

আগামী লোকসভা নির্বাচনের ছয় মাস আগে ২০২৩ সালে রয়েছে রাজস্থানের নির্বাচন৷ প্রতিপক্ষ শক্তিশালী হলেও রাজস্থানের ক্ষমতা এত সহজে হাতছাড়া করতে নারাজ কংগ্রেস৷ কিন্তু প্রদেশ কংগ্রেসের অন্দরে গেহলট বনাম সচিনের ঠাণ্ডা লড়াই চলছেই।

কিছুদিন আগে রাজস্থানে বিধায়কদের বৈঠক ডাকেন অশোক গেহলট। সেখানে উপস্থিত ছিলেন না সচিন৷ রাহুল গান্ধীর সঙ্গে ভারত জোড়ো যাত্রায় দেখা গিয়েছিল তাঁকে। এরপর অশোকের সঙ্গে সাক্ষাত করেন রাহুল গান্ধী। দুই শিবিরের লড়াইয়ের মাঝে সচিনের বার্তা, হাইকম্যান্ড ঠিক করবে সবটা।

তবে উদয়পুরেই কংগ্রেসের কর্মসূচিতে একাধিক সিদ্ধান্তের মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত ছিল এক ব্যক্তি, এক পদের নিয়ম অনুসরণ করবে কংগ্রেস। তারপর থেকে একের পর এক নেতারা যেভাবে দল ছেড়েছেন তাতে সামান্য কিছু অংশ জেগে রয়েছে জাহাজপ্রমাণ দলের৷

দেশজুড়ে ক্রমাগত বিপর্যয়ে জাতীয় কংগ্রেস। হাতে গোনা মাত্র দুটি রাজ্যে একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে সরকার রয়েছে দেশের সবচেয়ে পুরাতন দলের। তাই দ্রুত সভাপতি নির্বাচন করে সাংগঠনিক কাজ শুরু করতে চায় কংগ্রেস। আগামী ৩০ তারিখ মনোনয়ন জমা দেওয়ার শেষ দিন। ১৭ তারিখ কংগ্রেসের নিজস্ব নির্বাচন৷

(সব খবর, সঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে পান। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram এবং Facebook পেজ)