Amritpal Singh: পাক মদতে নেপাল থেকে পালানোর ছক খালিস্তানি মৌলবাদী অমৃতপালের

211
Amritpal

ভারতের সীমান্ত পার করে পাকিস্তানে ঢোকা কঠিন। তবে কোনওভাবে নেপালে চলে গেলে পাক গুপ্তচর সংস্থা আইএসআই তৈরি খালিস্তানি বিচ্ছিন্নতাবাদী নেতা অমৃতপাল সিংকে (Amritpal Singh) ‘সেফ হাউস’ এ নিয়ে যেতে। পলাতক শিখ মৌলবাদী নেতার ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা বিশ্লেষণে এমনই দিক খতিয়ে দেখছেন পাঞ্জাব পুলিশের কর্তারা। amritpal-singh

         অমৃতপাল সিং কি নেপালে আছে?

নেপালের সাথে ভারতের খোলা সীমান্ত। দুই দেশের কূটনৈতিক সম্পর্কের কারণে দুই দেশের নাগরিকরা আসা যাওয়া করতে পারেন। এই সুযোগটি নিতে পারে খালিস্তানি নেতা অমৃতপাল সিং। মনে করা হচ্ছে সে শিখ ধর্মীয় পোশাক ছেড়ে ভোল বদলে সাধারণ নাগরিকের মতো নেপালে ঢুকেছে।

গোয়েন্দা বিশ্লেষণে উঠে আসছে, নেপালে থাকা পাক সামরিক গুপ্তচর সংস্থা আইএসআই জাল পরিচয়পত্র ও পাসপোর্ট তৈরি করে অমৃতপাল সিংকে পাকিস্তানে নিয়ে যেতে চায়। কারণ, পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশের রাজধানী লাহোরে দীর্ঘ সময় থেকে খালিস্তানপন্থীদের ঘাঁটি।

  • লাহোর ছিল শিখ সাম্রাজ্যের রাজা রণজিত সিংয়ের রাজধানী।
  • পাকিস্তানের এই শহরেই আছে শিখ ধর্মীয় পীঠস্থান।
  •  অবলুপ্ত শিখ সাম্রাজ্যের আদলে খালিস্তান গঠন করে ভারত থেকে পাঞ্জাবের একাংশকে বিচ্ছিন্ন হওয়ার পরিকল্পনা পাক গুপ্তচর সংস্থার।
  • এর আগেও রক্তাক্ত খালিস্তানি আন্দোলন ও নাশকতা হয়েছে ভাররতের দিকে পাঞ্জাব অংশে।
  • পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশের লাহোর থেকেই খালিস্তানি উগ্র আবেগ পরিচালিত হয়। সেখানে একাধিক খালিস্তানপন্থী শিখ নেতার বসবাস।

শিখ ধর্মীয় আবেগ ভিত্তিক খালিস্তানি বিচ্ছিন্নতাবাদী নেতা অমৃতপাল সিং ওয়ারিস পাঞ্জাব দে (পাঞ্জাবের উত্তরাধিকারী) নামে সংগঠনের নেতা। তার নির্দেশে সংগঠনের কর্মীকে পুলিশের হেফাজত থেকে ছাড়াতে হামলা হয়েছিল। হাজার হাজার সশস্ত্র খালিস্তানির সামনে অসহায় ছিল পুলিশ। সেই ঘটনার পর শুরু হয় অমৃতপাল সিংকে গ্রেফতারের জন্য অভিযান। তবে বু়ধবার সকাল ১০টা পর্যন্ত সে পলাতক।

খালিস্তান সমর্থক ও 'ওয়ারিস পাঞ্জাব দে' সংগঠনের প্রধান অমৃতপাল সিং-এর (Amritpal) সঙ্গে পাকিস্তানি গোয়েন্দা সংস্থা আইএসআইয়ের যোগসূত্র সামনে এসেছে।

আত্মগোপনকারী অমৃতপাল সিং কি নেপালে? উঠছে প্রশ্ন। ভারত-নেপাল সীনান্তে চলছে বিশেষ নজরদারি।উত্তরাখণ্ড পুলিশ খালিস্তানিপন্থী বিচ্ছিন্নতাবাদী এবং ওয়ারিস পাঞ্জাব দে-এর প্রধান অমৃতপাল সিং এবং তার সহযোগীদের খোঁজে উধম সিং নগর জেলার ভারত-নেপাল সীমান্তের এলাকায় নিবিড় নজর রাখছে।

উত্তরাখণ্ড পুলিশ জানিয়েছে, গোয়েন্দা সংস্থাগুলিও পরিস্থিতি নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করছে। স্থানীয় গুরুদোয়ারা ও হোটেলগুলিতে চিরুনি অভিযান চালানো হয়। অমৃতপাল এবং তার সহযোগীরা দেশ ছেড়ে পালানোর চেষ্টা করছে বলে পাঞ্জাব পুলিশের কাছ থেকে তথ্য পাওয়ার পরে অনুসন্ধান চলছে।

punjab-police-2

পাঞ্জাবের আইজি সুখচৈন সিং গিল বলেছেন পাঞ্জাব পুলিশ অন্যান্য রাজ্য এবং কেন্দ্রীয় সংস্থাগুলির কাছ থেকে সম্পূর্ণ সহযোগিতা পাচ্ছে।পলাতক খালিস্তানি সমর্থকের বিভিন্ন পোশাকে বিভিন্ন ছবি প্রকাশ করেছে। এই ছবিগুলির মধ্যে একটিতে অমৃতপালকে ক্লিন-শেভেন হিসাবে দেখানো হয়েছে। পাঞ্জাব পুলিশের আইজি বলেছেন,বিভিন্ন পোশাকে অমৃতপাল সিংয়ের বেশ কয়েকটি ছবি রয়েছে। এই সব ছবি আমরা মুক্তি দিচ্ছি। এই মামলায় তাকে গ্রেফতার করতে আমাদের সহায়তা করুন।