Friday, February 3, 2023

Odisha: কলেজে ছাত্রীদের বয়ফ্রেন্ড বাধ্যতামূলক করল কর্তৃপক্ষ! সত্যটা জানলে চমকে যাবেন

- Advertisement -

ভ্যালেন্টাইন্স ডে (Velentine Day) আসতে চলেছে। ফেব্রুয়ারি মাস ‘ভালোবাসার’ মাসও বটে। প্রতিটা ছেলে মেয়ে চায় তাদের গার্লফ্রেন্ড ভালোবাসা দিবসে বয়ফ্রেন্ড হোক।  কল্পনা করুন, আপনার স্কুল বা কলেজ ক্যাম্পাসে প্রবেশ করতে এবং ক্লাসে উপস্থিত হওয়ার জন্য ভ্যালেন্টাইন্স ডে-তে প্রেমিক বা প্রেমিকা থাকা বাধ্যতামূলক!

হ্যাঁ, শুনতে ভালো লাগছে তাই না? ওড়িশায় স্বামী বিবেকানন্দ মেডিকেল স্বায়ত্তশাসিত কলেজ জগৎসিংহপুর (SVM Autonomous College in Jagatsinghpur) একই রকম কিছু দেখা গেছে৷  অধ্যক্ষের নোটিশে ‘মেয়ে ছাত্রীদের ভ্যালেন্টাইনস ডে-র আগে বয়ফ্রেন্ড তৈরি করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল।’ এই নোটিশটি খুব অল্প সময়ের মধ্যেই ভাইরাল হয়েছিল। এটি মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছিল, কিন্তু সত্য ছিল অন্য কিছু।

SVM Autonomous College in Jagatsinghpur

- Advertisement -

আসলে এখানকার প্রিন্সিপাল এমন কোনও নোটিশ জারি করেননি। পরে দেখা যায় নোটিশটি ভুয়া। আসলে যে নোটিশে ছাত্রীদের বয়ফ্রেন্ড বানানোর ‘আদেশ’ দেওয়া হয়েছিল, সেই নোটিশেও অধ্যক্ষের স্বাক্ষর ছিল। অভিযোগ, ভাইরাল নোটিশে একটি নির্দেশ রয়েছে যে মেয়েরা ১৪ ফেব্রুয়ারির আগে নিজের জন্য একটি প্রেমিক বেছে না নিলে তাদের ক্লাসে যেতে দেওয়া হবে না। ক্লাসে যোগদানের জন্য যোগ্য হওয়ার জন্য, মেয়ে শিক্ষার্থীদের শুধুমাত্র একটি প্রেমিক থাকতে হবে৷ কিন্তু তাদের যোগ্যতা নিশ্চিত করার জন্য তাদের বয়ফ্রেন্ডের ছবিও প্রিন্সিপালের অফিসে জমা দিতে হবে।

কলেজ ছাত্রী রশ্মিকা বেহেরা বলেন, “আমরা সবাই ভাইরাল নোটিশটি দেখেছি। এটা বাস্তব মনে হয় না৷ কিছু দুষ্কৃতী এই জাল নোটিশ ভাইরাল করেছে। আমাদের অধ্যক্ষ একজন ভালো মানুষ, তিনি এটা করতে পারেন না। অন্যদিকে, কলেজের অধ্যক্ষ বিজয় পাত্র এমন নির্দেশকে সম্পূর্ণ অস্বীকার করেছেন। এই ঘটনায় তিনি থানায় এফআইআর দায়ের করেছেন। অধ্যক্ষ বলেন, ‘এই নোটিশ সম্পূর্ণ ভুয়ো, যে লেটারহেডে ভাইরাল নোটিশ ছাপা হয়েছে তা জাল। এটিতে কলেজের যোগাযোগ নম্বর বা সঠিক ক্রমে নাম নেই।

কলেজের অধ্যক্ষ বিজয় পাত্র মিডিয়াকে বলেছেন, “আমরা পুলিশের কাছে এফআইআর দায়ের করেছি এবং অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী কঠোরতম শাস্তি দাবি করছি।”