19 C
Kolkata
Sunday, February 5, 2023

Vande Bharat train: ভারতে রেল পরিষেবা প্রদানে বড় পদক্ষেপ মোদি সরকারের

- Advertisement -

২০২৩ সালের বাজেটে ভারতে রেল পরিষেবা নিয়ে বড় ঘোষণা কেন্দ্র সরকারের। ভ্রমণ পিপাসুদের ও রেল যাত্রীদের জন্য সুখবর। পরবর্তী বাজেটে অর্থাৎ ২০২৩-২৪ সালের বাজেটে সরকার ৩০০-৪০৯ টি বন্দে ভারত ট্রেনের(Vande Bharat train) জন্য বাজেট ঘোষণা করতে পারে। ইতিমধ্যেই বন্দে ভারত ট্রেন নিয়ে যে পরিকল্পনা ঘোষিত হয়েছে তার পাশাপাশি ঘোষিত হয়েছে ৪৭৫ সেমি উচ্চ-গতির ট্রেনগুলি চালু করার পরিকল্পনা। যাত্রীদের ক্রমবর্ধমান চাহিদা মেটাতে এবং আরো ভালো অভিজ্ঞতা ও উন্নত পরিষেবা প্রদানের জন্য সরকার বছরে ৩০০-৪০০ টি ট্রেন অনুমোদন করার লক্ষ্যে নেমেছে।  

- Advertisement -

যাত্রীদের স্বাচ্ছন্দ্যবোধ ও উন্নত পরিষেবা প্রদানের লক্ষ্যে নেমে একগুচ্ছ পদক্ষেপ নিয়েছে মোদি সরকার। একদিকে যেমন বন্দে ভারত ট্রেনের সংখ্যা বাড়ানোর পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। অন্যদিকে অধিক উচ্চগতি সম্পন্ন বুলেট ট্রেন চালু করার পরিকল্পনাও নেওয়া হয়েছে কেন্দ্র সরকারের তরফ থেকে ‌

- Advertisement -

 ভারতে চালু হতে চলেছে টিল্টিং প্রযুক্তি সহ ট্রেন পরিষেবা। এই প্রসঙ্গে রেল মন্ত্রকের একজন আধিকারিক বলেছেন র, ভারত ২০২৫-২৬ সালের মধ্যে টিল্টিং প্রযুক্তি সহ ট্রেনের প্রথম সেট পাবে, এর ফলে যাত্রীরা এখন আরও বেশি সুবিধা পাবে। এই প্রযুক্তিটি ইতিমধ্যে অনুমোদিত ৪৭৫ টির মধ্যে প্রায় ১০০ টি বন্দে ভারত ট্রেনে ব্যবহার করা হবে, যা ট্রেনগুলিকে দ্রুত গতিতে ট্র্যাকের বাঁকে ঘুরতে সাহায্য করবে। এতে ট্রেন চলাচল আগের চেয়ে অনেকটাই সহজ হবে।

অন্যদিকে আসতে চলেছে স্লিপার কোচের সাথে প্রথম বন্দে ভারত ট্রেন। যাত্রীদের জন্য সবচেয়ে বড় সুখবর হল এখন বন্দে ভারতে স্লিপার কোচও থাকবে। রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব বলেছেন, স্লিপার কোচ-সহ প্রথম বন্দে ভারত ট্রেনটি ২০২৪ সালে প্রথম ত্রৈমাসিকে শুরু হবে। বর্তমানে এই সমস্ত ট্রেন ব্রডগেজ নেটওয়ার্কের জন্য। রেল মন্ত্রকের এক আধিকারিক বলেছেন, ‘আমরা এমন ট্রেন তৈরি করব যা স্ট্যান্ডার্ড গেজ নেটওয়ার্কে চলতে পারে। প্রয়োজনীয় পরীক্ষা চালানোর জন্য রাজস্থানে ২২০ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টা গতির একটি টেস্ট ট্র্যাক তৈরি করা হচ্ছে।

বন্দে ভারত ট্রেনের পাশাপাশি পরিকল্পনা রয়েছে ভারতের বুলেট ট্রেন পরিষেবা চালু করার। এখন যার ফলে প্রশ্ন উঠছে ভারতে প্রথম বুলেট ট্রেন কখন আসবে? সম্প্রতি রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব বলেছেন, দেশের প্রথম বুলেট ট্রেন ২০২৬ সালের মধ্যে শুরু হবে। 

প্রসঙ্গত, বর্তমানে দেশে ৫ টি বন্দে ভারত এক্সপ্রেস ট্রেন চলছে। এটি ২০১৯ সালে বন্দে ভারত দিয়ে শুরু হয়েছিল, যা নতুন দিল্লি এবং বারাণসীর মধ্যে শুরু হয়েছিল। এই ট্রেনগুলির সর্বোচ্চ গতি ১৮০ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টা, কিন্তু বর্তমানে এটি ১৩০ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টা গতিতে চালানো হচ্ছে। গান্ধীনগর এবং মুম্বইয়ের মধ্যে প্রথম বুলেট ট্রেন প্রকল্প তৈরি করা হচ্ছে, যার গতিবেগ হবে প্রায় ৩২০ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টা।

সূত্রের খবর অনুযায়ী আগামী বর্ষে অর্থাৎ ২০২৩ এর বাজেটে ৪০০ টি ট্রেনের অনুমোদন মিলতে পারে। গত বাজেটে ৪০০ টি ট্রেনের অনুমোদন দেওয়া হয়েছিল এবং এর আগে ৭৫ টি ট্রেনের অনুমোদন দেওয়া হয়েছিল। রেলমন্ত্রী বলেন, ‘আগামী তিন বছরে আমরা লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করব। অনেক দেশ এই ট্রেনে আগ্রহ দেখিয়েছে। ইউরোপ দক্ষিণ আফ্রিকার মত দেশ গুলিতে আগামী সময় এই বন্দে ভারত এক্সপ্রেস রফতানি করা হবে ভারত থেকে। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বে ইতিমধ্যেই একাধিক বন্ধে ভারত এক্সপ্রেস পরিষেবা মিলছে ভারতে তবে ভবিষ্যতে তিনি এই পরিষেবা আরও উন্নত করতে বিভিন্ন পদক্ষেপ নিতে চলেছেন।