Indian Railway: করোনা সচেতনতা বাড়াতে স্কুইড গেমের ধারণা ব্যবহার করল ভারতীয় রেল

208
Indian Railway uses Squid Game content to spread awareness against COVID

বায়োস্কোপ ডেস্ক: ওটিটি মাধ্যমে মুক্তি পাওয়ার পর থেকেই স্কুইড গেম ওয়েবসেরিজটি দেশজুড়ে বিপুল জনপ্রিয়তা অর্জন করে। এর পরেই কেবল সোশ্যাল মিডিয়ার মিম এর মধ্যেই নয় বিভিন্ন কোম্পানি তাদের মার্কেটিং পদ্ধতি হিসেবেও ব্যবহার করেছে স্কুইড গেমের ধারণা। এবার ভারতীয় রেলের (Indian Railway) থেকেও করোনা নিয়ে সচতনতা বাড়াতে স্কুইড গেমকে অস্ত্র হিসেবে বেছে নেওয়া হলো।

কোরিয়ান নেটফ্লিক্স শো স্কুইড গেমের জনপ্রিয়তা দিন দিন বাড়ছে। কোরিয়ান ওয়েবসেরিজের আইকনিক জায়ান্ট ডল ব্যবহার করে একটি অদ্ভুত সৃজনশীলতার সাহায্যে ভারতীয় রেল বিভাগ সকলকে কোভিড বিধিগুলো গুরুত্ব সহকারে অনুসরণ করার জন্য সতর্ক করেছে। ডিস্ত্রপিয়ান এই ওয়েবসিরিজে একটি ভয়ঙ্কর ভূমিকায় দেখা যায় সেই জায়ান্ট ডলকে যার ২ গজ দূরত্বে দাড়িয়ে থাকতে দেখা যায় সমস্ত মুখোশধারী প্রহরীদের।

ভারতীয় রেল “কোভিড এর বিরুদ্ধে একটি ম্যাচ জিততে” তিনটি নিয়ম যুক্ত করেছে। ভারতীয় রেলের ওই বিজ্ঞাপনে শো -এর অতিথি তারকা গং ইয়ু, যিনি দাকজী খেলার জন্য পরিচিত, একটি লাল খামের সঙ্গে ‘আমি টিকা নিয়েছি’ লেখা পোস্টারে দেখা যায়। এটিতে সাধারণ মানুষকে সারিবদ্ধভাবে দেখানো হয়েছে এবং তাদের জনসমক্ষে মুখোশ পরার অনুরোধ করা হয়েছে।

শো এর শুরুতে দেখা যায় টাকার জন্য একটি ভয়ানক খেলা প্রথমে ৪৫৬ জন খেলোয়াড় নিয়ে শুরু হয়। কিন্তু ধীরে ধীরে খেলোয়াড়ের সংখ্যা কমতে থাকে এবং প্রতিযোগিতা আরো ভয়ানক হতে থাকে বিপুল পরিমাণ নগদ টাকার জন্য। জায়ান্ট ডল সেই ভয়াবহ প্রতিযোগিতারই একটি অংশ।

এর আগে, মুম্বাই পুলিশও ট্রাফিক নিয়ম সম্পর্কে মানুষকে স্মরণ করিয়ে দিতে স্কুইড গেম মেম ট্রেন্ডে যোগ দিয়েছিল। শো এর খেলা – লাল আলো, সবুজ আলো – উল্লেখ করে পুলিশ একটি সাধারণ নিয়ম প্রচার করেছিল যে কীভাবে কেউ নিজেকে দুর্ঘটনার করা থেকে বাঁচাতে পারে।